World

একাকীত্বের দিন শেষ! অবসাদ মুছতে পাশে দাঁড়াবেন ‘একাকীত্ব মন্ত্রী’

একাকীত্বের যন্ত্রণা সেই বোঝে যে একা থাকে। মনের ভিতরে অনেকসময় জমে রাশি রাশি অভিমান, কষ্ট, অভিযোগ। অথবা সুখের বা দুঃখের অনুভূতি। কারও সঙ্গে তা ভাগ করে নিতে না পেরে গুমরে কাঁদে মন। সেই সমস্যার কথা ভেবেই ব্রিটিশ সরকার এক অভিনব উদ্যোগ নিল। বুধবার একাকীত্ব মন্ত্রক বলে একটি মন্ত্রকের জন্ম দিল তারা। যে দফতরের মন্ত্রীকে দায়িত্ব সঁপে দিলেন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। ইংল্যান্ডের ক্রীড়া ও নাগরিক সমাজের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী হিসেবে নিজের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন ট্রেসি ক্রাউচ। এবার থেকে দেশে একাকীত্বের যন্ত্রণায় ধুঁকতে থাকা মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর দায়িত্বও তাঁর।

সমীক্ষায় দেখা গেছে, ব্রিটেনে প্রায় ৯০ লক্ষ মানুষ একাকীত্বের শিকার। যারমধ্যে প্রায় সব বয়সের নারী পুরুষই রয়েছেন। যাঁদের মধ্যে প্রায় ২ লক্ষ প্রবীণের অবস্থা আরোই উদ্বেগ জনক। কাছের কোন বন্ধু বা পরিবারের সঙ্গে হয়তো তাঁদের মাসের পর মাস, বছরের পর বছর কথা হয় না। যার পরিণতি অবসাদ। আর সেই অবসাদের প্রতিফলন আত্মহত্যা বা হঠকারী কোনও কাজের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলা। সেই সমস্যা নির্মূল করতেই বেশ কয়েক বছর ধরে ভাবনাচিন্তা শুরু করে ব্রিটিশ প্রশাসন। ২০১৬ সালে আততায়ীর হামলায় নিহত লেবার পার্টির ৪১ বছর বয়সী সাংসদ জো কক্স চেয়েছিলেন ব্রিটেনের একা হয়ে যাওয়া মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াক সরকার। একাকীত্বে ভুগতে থাকা মানুষদের সাহায্যার্থে গড়ে উঠুক তহবিল। তৈরি হোক পৃথক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। বুধবার ট্রেসি ক্রাউচ, প্রয়াত জো কক্সের সেই স্বপ্নপূরণ করার প্রতিশ্রুতিতে আবদ্ধ হলেন। যা নতুন করে স্বপ্ন দেখার সুযোগ করে দিল ব্রিটেনের সিংহভাগ একাকী বাসিন্দাদের।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button