World

একটি চিঠির সঠিক ঠিকানায় পৌঁছতে লেগে গেল ১০০ বছর

শতাধিক বছর আগে যোগাযোগের সবচেয়ে বড় মাধ্যম ছিল চিঠি। তেমনই এক চিঠি ১০০ বছর পর পৌঁছল চিঠিতে লেখা ঠিকানায়। বাস্তবে ঘটল এমন ঘটনা।

একটি চিঠির সঠিক ঠিকানায় পৌঁছতে লেগে গেল ১০০ বছর। এমন কাণ্ড যে বাস্তবে ঘটতে পারে তা দেখা গেল। চিঠিটি যে বাড়িতে এসে হাজির হয় কয়েক বছর আগে সেই পরিবার চিঠিটি দেখে প্রথমে অবাক হয়ে যায়।

তারপর পরিবারের একজন চিঠিটিতে স্ট্যাম্প-এর তারিখ দেখে দেখেন সাল হিসাবে ১৬ লেখা আছে। প্রথমে তিনি মনে করেন ২০১৬ সাল। তাতেও তো বছর ঘুরে গেল চিঠি আসতে! তাও দেশের মধ্যেই এক জায়গা থেকে আর এক জায়গায় যেতে।

কিন্তু ওই ব্যক্তি ভাল করে চিঠিটি লক্ষ্য করে দেখেন তা অত্যন্ত পুরনো। সেইসঙ্গে যে স্ট্যাম্পটি ব্যবহার হয়েছে তাতে রাজার ছবি রয়েছে। ২০১৬ হলে তো রানির ছবি থাকত। কারণ দেশটা ব্রিটেন।

প্রথমে চিঠিটি তাঁরা রেখে দিলেও হালে তাঁরা তা গবেষণার জন্য দেন। পরে গবেষণা করে ঐতিহাসিকরা দেখেন সেটি ১৯১৬ সালে পোস্ট করা হয়েছিল।


তখন প্রথম বিশ্বযুদ্ধ চলছে। একজন মহিলা তাঁর বান্ধবীকে চিঠিটি লিখেছিলেন। তিনি কেমন ছুটি কাটাচ্ছেন তা জানিয়ে চিঠি লেখেন তিনি।

অন্য শহরে থাকা বান্ধবী কিন্তু সে চিঠি আর হাতে পাননি। কোনওভাবে চিঠিটি তখন ঠিকানায় পাঠানো হয়নি। এতদিন পর কিন্তু সেই চিঠি ঠিকানায় পৌঁছল।

ততদিনে অবশ্য কেটে গেছে শতাধিক বছর। যখন পুরো দুনিয়াটাই গিয়েছে বদলে। প্রেরক ও প্রাপক ২ জনই গত হয়েছেন।

ব্রিটেনের বাথ শহর থেকে চিঠিটি পোস্ট করা হয়েছিল লন্ডনের একটি ঠিকানায়। যা এখন একটা ইতিহাস। বিশ্বের তাবড় সংবাদমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে খবরটি। যা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা মানুষের নজর কেড়েছে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button