World

সহকর্মীর প্যান্টের চেন খুলে অঙ্গে হাত, চাকরি গেল পুলিশকর্মীর

তাঁরই এক সহকর্মীর সঙ্গে অভব্য আচরণের জন্য চাকরি গেল এক পুলিশকর্মীর। তিনি আচমকাই সহকর্মীর প্যান্টের চেন খুলে তাঁর অঙ্গ চেপে ধরেন।

ওই পুলিশ স্টেশনে নতুন যোগ দিয়েছিলেন এক পুলিশকর্মী। নতুন কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে ব়্যাগিং-এর প্রচলন রয়েছে। কিন্তু খোদ কর্মস্থলেও যে তাঁকে এতটা অস্বস্তিতে পড়তে হবে তা বোধহয় তিনি কল্পনাও করতে পারেননি।

ওই পুলিশ স্টেশনে আগে থেকেই কর্মরত এক পুলিশকর্মী সহ সেদিন অন্য সহকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। ওই নতুন নিয়োগ হওয়া যুবক আসতে আচমকাই তাঁর কাছে এসে তাঁর প্যান্টের চেন খুলে দেন অ্যাডাম রিডস। তারপর সোজা হাত ঢুকিয়ে দেন খোলা চেনের মধ্যে দিয়ে।

হাত পৌঁছ যায় ওই যুবকের অঙ্গে। সেটি চেপে ধরে অ্যাডাম এটা ছোট এটা ছোট বলে মজা করে চেঁচিয়ে ওঠেন। এভাবে কর্মস্থলে চরম হেনস্থার শিকার হয়ে ভেঙে পড়েন ওই যুবক।

এই ঘটনার পর অ্যাডাম রিডসের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়। সেই বিচারে দোষী সাব্যস্ত হন ব্রিটেনের উইটশায়ার পুলিশ বিভাগের কর্মী রিডস। তাঁকে বরখাস্ত করা হয় চাকরি থেকে।

মজা হলেও যে কাজ তিনি করেছেন তা একেবারেই অনুচিত বলেই নয়, তা তাঁর সহকর্মীর সম্মানহানিও করেছে। যা ওই যুবক পুলিশকর্মীকে মানসিক অবসাদের দিকে ঠেলে দেয়।

ব্রিটেনে এভাবে কেউ পুলিশ বিভাগ থেকে বরখাস্ত হলে তাঁর নাম একটি বিশেষ তালিকাতেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়। সেই তালিকায় জায়গা হয়েছে অ্যাডাম রিডসের। যে তালিকায় নাম থাকা মানে তিনি আর জীবনে কখনওই পুলিশের চাকরি পাবেন না।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.