World

বাগানে সাজানো জিনিসটি আসলে একটি তাজা বোমা, জানতেন না বাসিন্দারা

বাগানে শুধু গাছপালাই থাকেনা, সঙ্গে নানা কিছু দিয়ে সেই বাগানকে আরও দৃষ্টিনন্দন করে তোলা হয়। কিন্তু বাগানের শোভা বাড়াচ্ছিল একটি বোমা।

বাগানে যে বস্তুটি সাজানো ছিল তা যে আদপে কি সে সম্বন্ধে কোনও ধারনাই ছিলনা বাসিন্দাদের। তাঁরা বাগান ঘেরা ওই বাড়িটিতে বসবাস শুরু করেন ৪১ বছর আগে। তার আগে যাঁরা থাকতেন তাঁরা বাগান ঘুরিয়ে দেখানোর সময় জানিয়েছিলেন তাঁরাও দশক দশক ধরে ওই বস্তুটিকে বাগানে সাজানো দেখেছেন।

পুরনো মালিকের সেই সাজানো বস্তুটি বাগানে বেশ মানিয়েছিল। তাই তা সরানোর কথা বর্তমান বাসিন্দাদেরও মাথায় আসেনি। এমনকি তাঁরা চানওনি ওটা সরাতে। বাগানের শোভা বাড়াচ্ছে যে বস্তুটি তা সরানোর কি প্রয়োজন!

ওটা বিংশ শতাব্দীর এক নিষ্ক্রিয় ক্ষেপণাস্ত্রের খোল বলেই জানা ছিল বাসিন্দাদের। যা তাঁদের বাগানের শোভা বাড়াচ্ছে। কিন্তু কিছুদিন আগে পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয় ওই বস্তুটি তারা পরীক্ষা করতে পাঠাতে চায়।

একটি বম্ব স্কোয়াড তাঁদের বাড়ি আসে। বাগানের সেই শোভাকে খতিয়ে দেখে তারা যা জানায় তাতে শিরদাঁড়া দিয়ে হিমস্রোত বয়ে যায় সকলের।

বোমাটি নাকি তখনও জীবন্ত রয়েছে। তবে তার ক্ষমতা কমে এসেছে। কিন্তু ফাটতে তো পারে! এটাও জানা যায় যে বোমাটির বয়স ১০০ বছরের বেশি হবে। এটা সেনাবাহিনী সে সময় ব্যবহার করত।

বাগান থেকে বোমাটি উদ্ধার করে তা পরে নিষ্ক্রিয় করে বম্ব স্কোয়াড। ঘটনাটি ঘটেছে ইংল্যান্ডের ওয়েলসে। ১০০ বছর ধরে বাগানে একটি জীবন্ত বোমা সাজানো ছিল এটা জেনে শুধু বাড়ির বাসিন্দারাই নন, প্রতিবেশিরাও রীতিমত আতঙ্কিত। এই খবর বিশ্বের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে জায়গা করে নিতে সময় নেয়নি।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button