World

৩৪ বছরের রেকর্ড ভেঙে ৫ সন্তানের জন্ম দিলেন মা

৫ সন্তানের জন্ম দিলেন এক ৩০ বছরর যুবতী। সেনাবাহিনীতে কর্মরত তিনি। হাসপাতালে এই শিশুদের জন্মের পর হৈচৈ পড়ে যায়।

তিনি সন্তানসম্ভবা হওয়ার পর এক সন্তানের আগেই মৃত্যু হয়। ফলে তাঁর প্রসব নিয়ে একটা চিন্তা চিকিৎসকদের ছিল। তারওপর তাঁর এই সন্তানধারণ স্বাভাবিক নিয়মে হয়নি। তিনি সন্তানের জন্য কৃত্রিম প্রজনন পদ্ধতির আশ্রয় নিয়েছিলেন।

তার মধ্যে আবার এক শিশুর জন্মের আগেই মৃত্যু। সব নিয়ে একটা চিন্তা ছিলই। ফলে তাঁর সন্তান প্রসবের সময় চিকিৎসকেরাও বিশেষ পদ্ধতির সাহায্য নেন।

৩০ জন চিকিৎসক মিলে এই সন্তান প্রসব পর্ব পরিচালনা করেন। সব মিলিয়ে অবশেষে ৩০ বছরের ওই মহিলা সেনানী ৫ সন্তানের জন্ম দেন।

৫ সন্তানের মধ্যে ৪টি কন্যা ও ১টি পুত্র সন্তান। সকলেই ভাল আছে। মাও সুস্থ আছেন। সদ্যোজাতদের ওজন অবশ্য স্বাভাবিকের চেয়ে কম। আকারেও ছোট। তবে তারা ভাল আছে। তাই চিকিৎসকেরাও নিশ্চিন্ত। তবে সকলকেই পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

একসঙ্গে এক মহিলা ৫ সন্তানের জন্ম দিলেন এমনটা দক্ষিণ কোরিয়ায় শেষবার হয়েছিল ১৯৮৭ সালে। তারপর এই ৩৪ বছর পর ফের সেই ঘটনা ঘটল।

সিওল ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে এই বিরল সন্তান প্রসবের ঘটনা ঘটেছে। এই খবর ছড়িয়ে পড়তে সময় নেয়নি। শিশুদের মা ও বাবা ২ জনই দক্ষিণ কোরিয়ার সেনাবাহিনীতে কর্মরত। তাঁদের ২ জনের বয়সই ৩০ বছর।

শুক্রবার এই সন্তান প্রসবরে ঘটনা ঘটার পর এটিকে একটি বিরল রেকর্ড হিসাবেই দেখছেন চিকিৎসকেরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *