World

ব্যস্ত শহরের রাস্তায় কালো সাদা ডোরার ঘোরাঘুরি, চোখ কপালে উঠল সকলের

ব্যস্ত শহর বলে কথা! সেখানে অসংখ্য গাড়ির ভিড়। মানুষের ব্যস্ত যাতায়াত। সেখানে এক সাদাকালো ডোরাকাটা প্রাণিকে ঘুরতে দেখে কার্যত চোখ কপালে উঠল সকলের।

জঙ্গলই বটে! তবে গাছের জঙ্গল নয়, গাড়ির জঙ্গল, ইট কাঠ পাথরের জঙ্গল। এ জঙ্গল তার চেনা নয়। অবশ্য গাছের জঙ্গলও তার অচেনার তালিকাতেই পড়ে। তবে সহজাতভাবে হয়তো গাছের জঙ্গল হলে তার মানিয়ে নিতে অসুবিধা হতনা।

কিন্তু এই শহরের জঙ্গল তার একেবারেই চেনা নয়। তাই উদভ্রান্তের মতই ঘুরতে থাকল সে। কখনও যানজটে দাঁড়ানো গাড়ির ফাঁক গলে, কখনও অপরিসর গলিপথ ধরে।

কোথায় যাবে জানে না। কেন ঘুরছে জানে না। মুক্তির আনন্দটাও উপভোগ করছে কি? তাও পরিস্কার নয়। কিন্তু তাকে দেখে আশপাশের মানুষের চোখ কপালে উঠল। রাস্তায় ধারে সরে গিয়ে তাকে জায়গা করে দিলেন আতঙ্কিত মানুষজন।

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী শহর সিওলে। সেখানে চিলড্রেনস গ্র্যান্ড পার্ক চিড়িয়াখানায় তার বাস। নাম সেরো। ২০১৯ সালে জন্ম নেওয়া এই জেব্রা এখন তরতাজা তরুণ।


কোনওভাবে সে ওই চিড়িয়াখানার ঘেরাটোপ থেকে লুকিয়ে বেরিয়ে পড়ে রাস্তায়। তারপর ঘুরে বেড়াতে থাকে রাস্তায়। সিওলের মত ব্যস্ত শহরের রাস্তায় এক জেব্রাকে ঘুরতে দেখে প্রথমে অনেকে নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারেননি। তারপর যখন বুঝলেন তখন আতঙ্কিত হয়ে পড়েন অনেকে।

এদিকে নানা রাস্তায় ঘুরে বেড়াতে বেড়াতে জেব্রা ঘণ্টা খানেক কাটিয়ে ফেলে। সেরো যে চিড়িয়াখানা থেকে বেরিয়ে পড়েছে তা জানতে পারে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। সে কোথায় রয়েছে তা চিহ্নিত করে তাকে ফের পাকড়াও করতে আসেন বিশেষজ্ঞেরা।

তারপর তাকে ঘুম পাড়ানি ওষুধে বিদ্ধ করে ফের ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় চিড়িয়াখানায়। তবে শহরের রাস্তায় জেব্রার ঘোরাঘুরি কিন্তু সিওলের সেই দিনের মুখে মুখে ঘোরা খবর হয়ে গেল। সেরোর এই সিওল ভ্রমণের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় হুহু করে ছড়িয়ে পড়ে। যা গোটা বিশ্বের নজর কেড়েছে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button