World

কবরে হবে অভিনব চিকিৎসা, খরচ ৪৭ লক্ষ

একজন মানুষকে মাটিতে কবর দেওয়া হবে। কফিনে পুরেই তাঁকে দেওয়া হবে কবর। এই থেরাপি বা চিকিৎসা পেতে মানুষটিকে করতে হবে বিপুল পরিমাণ খরচ।

২ পক্ষে অশান্তি চরমে উঠলে অনেক সময় মাথা গরম মানুষজনকে অপরপক্ষকে বলতে শোনা যায় জ্যান্ত মাটিতে পুঁতে দেওয়ার কথা। কিন্তু সত্যি এমনটা করলে কারাগারেও জায়গা হতে পারে তাঁর। আর এক্ষেত্রে হচ্ছে উলট পুরাণ।

কাউকে একটি সংস্থা সব ব্যবস্থা করে জ্যান্ত মাটি খুঁড়ে সেখানে কফিনে পুরে কবর দিয়ে দেওয়ার সব ব্যবস্থা করবে। আর সেজন্য সংস্থা টাকাও নেবে। তাও নেহাত কম নয়। ভারতীয় মুদ্রায় ৪৭ লক্ষ টাকা নিচ্ছে তারা।

রাশিয়ার একটি সংস্থা এই অভিনব উদ্যোগ শুরু করেছে। যেখানে কেউ আবেদন করতে পারেন তাঁকে জ্যান্ত পুঁতে দেওয়ার জন্য। সংস্থা ওই ব্যক্তির কাছ থেকে ৪৭ লক্ষ টাকা নিয়ে তাঁর জন্য গর্ত খুঁড়বে।

তারপর তাঁকে কফিনে পুরে সেই কফিন গর্তে ঢুকিয়ে দেবে। মনে হতেই পারে কেউ নিজের এমন ভয়ংকর পরিণতি চাইবেন আবার টাকাও দেবেন! এমনটা হতে পারে নাকি!


হতে পারে নয়, হচ্ছে। কারণ রাশিয়ার ওই সংস্থা এই ব্যবস্থা করেছে উদ্বেগে ভোগা মানুষজনকে একটি বিশেষ থেরাপি বা চিকিৎসা দেওয়া জন্য।

যাঁরা অত্যন্ত উদ্বেগে ভোগেন তাঁদের এভাবে কফিনবন্দি করে সংস্থার তরফে মাটিতে পুঁতে ফেলা হচ্ছে। সেখানে তাঁকে ১ ঘণ্টা রেখেও দেওয়া হচ্ছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে সাইকিক থেরাপি বা মানসিক চিকিৎসা।

এতে তাঁর উদ্বেগ অনেকটা কেটে যাবে বলেই সংস্থার দাবি। সংস্থার তরফে এটাও নিশ্চিত করা হয়েছে যে মাটিতে পুঁতে ফেলার পুরো বিষয়টি সবরকম সুরক্ষা বন্দোবস্ত করেই করা হয়েছে। যাতে কারও কোনও ক্ষতি না হয়। তবে বিশ্বে এই প্রথম এমন থেরাপি পেতে হলে যেতে হবে রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গ-এ।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button