National

আড়াই ফুটের বরের পূর্ণ হল বিয়ের শখ, ডাকতে হল পুলিশও

আড়াই ফুটের মানুষটি চেয়েছিলেন বিয়ে করতে। সেজন্য একটি পাত্রী পেতে তিনি সর্বত্র দরবার করেছেন। অবশেষে তাঁর বিয়ে হল। সেখানে আবার পুলিশও ডাকতে হল।

তাঁর একটি প্রসাধনী সামগ্রির দোকান রয়েছে। রোজগারও মন্দ নয়। বয়সেও তরুণ। এমন এক পাত্র চেয়েছিলেন বিয়ে করতে। বিয়ে করে সংসারী হতে। এজন্য সকলকে বলতেন একজন পাত্রী জোগাড় করে দিতে। কিন্তু কোনও পাত্রীই রাজি হন না।

হন্যে হয়ে ঘুরেছেন পাত্রী পেতে। এমনকি পুলিশের কাছেও গিয়েছিলেন পাত্রী খুঁজে দেওয়ার জন্য। চিঠি লিখেছিলেন উত্তরপ্রদেশর মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকেও।

আবেদন একটাই। একটা পাত্রী খুঁজে দিন মুখ্যমন্ত্রী। পাত্রের এই পাত্রী না পাওয়ার জন্য দায়ী অবশ্য তাঁর উচ্চতা। আড়াই ফুট উচ্চতার এক মানুষকে বিয়ে করে সারা জীবন কাটাতে রাজি হচ্ছিলেন না কোনও পাত্রীই।

কয়েক বছর চেষ্টার পর অবশেষে পাত্রী মিলল। পাত্রীর উচ্চতা পাত্রের চেয়ে একটু কম, ২ ফুট। ফলে ২ জনকে পাশাপাশি মন্দ মানায়নি।


পাত্রী পেয়ে বেজায় খুশি আজিম মনসুরি তাঁর আত্মীয়পরিজন, পাড়া প্রতিবেশি, যাঁকে যাঁকে চেনেন বিয়েতে নিমন্ত্রণও করেন। উত্তরপ্রদেশের শামলিতে আজিম আর বুসরার বিয়ের আয়োজন হয়েছিল বুধবার সন্ধেয়। বিয়ে নিয়ে দারুণ খুশি আজিম আয়োজনেও ত্রুটি রাখেননি।

এদিকে আজিমের বিয়েতে নিমন্ত্রিতরা তো বটেই, এমনকি অনেকে বিনা নিমন্ত্রণেও হাজির হন বরবেশে আজিমের সঙ্গে সেলফি তুলতে। অনেকে তো ছবি তুলতে প্রায় কোলেই তুলে নেন ৩২ বছরের আজিমকে।

আর তার জেরেই এমন ভিড় জমে যায় যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ডাকতে হয়। পুলিশ এসে ভিড় সরিয়ে বিয়ের প্রাঙ্গণে সুষ্ঠু অবস্থা ফিরিয়ে আনে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button