Entertainment

অভিনেতা রাজপাল যাদবের ৬ মাসের কারাদণ্ড, পরে জামিন

ছবির জন্য ঋণ নিয়েছিলেন বলিউড অভিনেতা রাজপাল যাদব। কিন্তু সময়মত ঋণদাতাকে টাকা ফেরত দেননি তিনি। উল্টে ৭ বার তাঁর দেওয়া চেক বাউন্স করেছে। এই অভিযোগে ঋণদাতা আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। সেই মামলায় গত সোমবার সাজা ঘোষণা করল আদালত। ৬ মাসের জন্য রাজপাল যাদবকে কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল দিল্লির একটি আদালত। চেক বাউন্স করায় অভিনেতাকে ১১ কোটি ২০ লক্ষ টাকার ফাইন দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। ‘আতা পাতা লাপাতা’ নামে একটি সিনেমার প্রযোজনার জন্যই ২০১০ সালে দিল্লির মুরলী প্রোজেক্ট নামে কোম্পানির থেকে ৫ কোটি টাকা ঋণ নেন রাজপাল যাদব এবং তাঁর স্ত্রী রাধা যাদব।

অভিযোগ নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে গেলেও ঋণের টাকা ফেরত দেননি ‘ফির হেরা ফেরি’, ‘ভাগম ভাগ’, ‘ভুলভুলাইয়া’ খ্যাত অভিনেতা। এরপরই বলিউডের অন্যতম সেরা কৌতুক অভিনেতা হিসাবে খ্যাত রাজপাল যাদবের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন দিল্লির ওই সংস্থার মালিক এমজি আগরওয়াল। সেই মামলার শুনানিতেই গত ১৪ এপ্রিল আদালত রাজপাল যাদব এবং তাঁর সংস্থাকে দোষী সাব্যস্ত করে। ২০১৩ সালে এই মামলাতেই রাজপালের আইনজীবী আদালতে মিথ্যে নথিপত্র পেশ করেছিলেন। যার ফলে ১০ দিনের কারাদণ্ড হয়েছিল রাজপালের। ৪ দিন তাঁকে সেসময়ে জেলে রাতও কাটাতে হয়েছিল। সেই মামলাতেই গত সোমবার ফের দোষী সাব্যস্ত হন রাজপাল ও তাঁর স্ত্রী৷ পরে ৫০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিনে ছাড়া পান অভিনেতা।

(ছবি – সৌজন্যে – ফেসবুক)


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button