World

লস্কর জঙ্গি পাঠিয়ে তালিবানকে সাহায্য করে পাক সেনা

তালিবান যখন এগোচ্ছে তখন আফগানিস্তান সরকার দাবি করেছিল পাকিস্তান তালিবানকে মদত দিচ্ছে। তাদের দাবি যে সত্য ছিল তা এবার বেরিয়ে এল বিশেষ রিপোর্টে।

তালিবান যখন এক এক করে আফগানিস্তানের শহরগুলির ওপর তাদের আধিপত্য কায়েম করতে আফগান সেনার বিরুদ্ধে লড়াই চালাচ্ছিল তখন তালিবানের পাশে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করছিল পাকিস্তানের মাটিতে তৈরি হওয়া সন্ত্রাসবাদী সংগঠন লস্কর-ই-তৈবার জঙ্গিরা।

যে জঙ্গিদের লড়াইয়ের ময়দানে সেদিন দেখা গিয়েছিল তারা যে লস্কর জঙ্গি ছিল তা এবার সামনে এল। তালিবানকে মদত দেওয়ায় পাক সেনার সরাসরি যোগ পাওয়া গিয়েছে।

পাকিস্তানে পাক মদতপুষ্ট ২টি জঙ্গি সংগঠন রয়েছে, লস্কর-ই-তৈবা এবং জৈশ-ই-মহম্মদ। এরমধ্যে লস্কর-ই-তৈবার অনুশীলনপ্রাপ্ত জঙ্গিদের তালিবানকে সাহায্য করতে আফগানিস্তানে পাঠাতে থাকে পাক সেনা।

ঠিক কতজন লস্কর জঙ্গিকে পাঠানো হয়েছিল তা জানা না গেলেও মোটামুটি সংখ্যাটা ১০ হাজারের মত। যা নেহাত কম নয়।

লস্কর জঙ্গিদের তালিবানের পাশে থেকে লড়াই করতে দেখা গিয়েছে। এমনকি লড়াইয়ে অনেক লস্কর জঙ্গির প্রাণও গেছে। কান্দাহারে এক লস্কর কমান্ডারেরও প্রাণ যায়।

এমনকি লস্কর জঙ্গিরা আফগানিস্তানে লড়াই করতে গিয়ে জখম হলে তাদের জন্য মেকশিফট হাসপাতালেরও ব্যবস্থা করে পাকিস্তান।

এমনকি পাকিস্তানের অনেক যুবককে জোর করে আফগানিস্তানে লড়াই করতে পাঠানো হয় বলেও সামনে এসেছে। কোনও লস্কর জঙ্গির যদি আফগানিস্তানে লড়াই করতে গিয়ে মৃত্যু হয় তাকে সীমানা পার করে দেশে ফেরানোর বন্দোবস্তও করে পাকিস্তান।

তালিবান আফগানিস্তান দখলের পর পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের তালিবান সমর্থনে বক্তব্যও যথেষ্ট সমালোচনার মুখে পড়ে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button