National

স্বামী স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি ঘুরিয়ে দিল বিমানের মুখ

স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া অশান্তি কোনও নতুন কথা নয়। এমনটা তো সব পরিবারেই হয়ে থাকে। কিন্তু এ অশান্তি বিমানের মুখও ঘুরিয়ে দিল।

স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া। কথায় বলে এক জায়গায় বাসন রাখলে ঠোকাঠুকি তো হয়েই থাকে। বিষয়টি সাধারণ জীবনে এতই আকছার যে তা নিয়ে কেউ মাথা ঘামান না। ঝগড়া অশান্তি করা স্বামী স্ত্রীও নন। ঝগড়া হয়। তারপর তা থেমেও যায়। কিন্তু এ ঝগড়াটা একদম অন্য কিছু ঘটিয়ে দিল। ফলে এক স্বামী স্ত্রীর ঝগড়া এখন খবরের শিরোনামে।

একটি বিমান থাইল্যান্ডের দিকে যাচ্ছিল। উড়েছিল মিউনিখ থেকে। বিমানে অন্য যাত্রীদের সঙ্গে এক দম্পতিও ছিলেন। স্বামী জার্মান, স্ত্রী থাইল্যান্ডের মানুষ।

লুফথানসার বিমানটি বেশ উড়ে চলেছিল গন্তব্যের দিকে। কিন্তু বিমানের মধ্যে তার মাঝেই স্বামী স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি শুরু হয়। ক্রমশ গলার জোর বাড়তে থাকে।

জার্মান স্বামীও চিৎকার করছেন। পাল্টা তাঁর থাইল্যান্ডের বাসিন্দা স্ত্রীও চিৎকার করছেন। যা বিমানের মধ্যের পরিবেশ বদলে দেয়। এরমধ্যেই ওই মহিলা একসময় চিৎকার করে পাইলটের সাহায্য চান।

তিনি দাবি করেন তাঁর স্বামী তাঁকে হুমকি দিচ্ছেন। পাইলট বেশ কয়েকবার তাঁদের সতর্ক করেন। কিন্তু ঝগড়া থামেনি। চিৎকার থামেনি।

এখানে নামার কথা না থাকলেও অগত্যা পাইলট বিমানটি নিয়ে দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার অনুমতি চান। অনুমতি পাওয়ার পর বিমানটি রানওয়ে স্পর্শ করে। ওই জার্মান ব্যক্তিকে বিমানবন্দরের সুরক্ষাকর্মীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। বিমানটি কিছুটা সময় অপেক্ষার পর উড়ে যায় থাইল্যান্ডের দিকে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button