National

মৃত্যু হল পরিবারের ১ জনের, ২ বার শ্মশানে গিয়ে ২টি দেহ পোড়াল পরিবার

১ বৃদ্ধার মৃত্যু হলে দেহ নিয়ে পরিবারের সদস্যরা শ্মশানে যান। কিন্তু পরিবারের ১ জনের মৃত্যুতে ২ বার শ্মশানে গিয়ে ২টি দেহ দাহ করতে হল তাঁদের।

হাসপাতালে ভর্তি করেও বাঁচানোটা সম্ভব হয়নি। হাসপাতাল থেকেই খবর আসে প্রায় ৮৮ বছরের বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। পরিবারে শোকের ছায়া নেমে আসে। শোকাচ্ছন্ন পরিবার হাজির হয় হাসপাতালে। সেখানে মর্গে রাখা দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পরিবারের সদস্যরা সেই দেহ নিয়ে যান শ্মশানে। যাবতীয় রীতি মেনে শ্মশানে দাহকার্য সম্পন্নও হয়।

এদিকে সেই হাসপাতালে তখন এক বৃদ্ধার পরিবারের সদস্যরা রীতিমত হইচই জুড়ে দিয়েছেন। কারণ তাদেরও পরিবারের প্রায় ৮৮ বছরের বৃদ্ধা সদস্যার মৃত্যুর পর তাঁর দেহের বদলে অন্য একটি দেহ তাঁদের দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করে ওই পরিবার।

এই পরিস্থিতিতে পুলিশ হাজির হয়। ভাল করে খতিয়ে জানা যায় যে কেরালার কাঞ্জিরাপল্লীর ওই হাসপাতালটিই যত সমস্যার সৃষ্টি করেছে। কারণ তারা অন্য যে বৃদ্ধার মৃতদেহ তাঁর পরিবারের হাতে তুলে দিয়েছিল তা তাঁর দেহ ছিলনা। ছিল এই ক্ষুব্ধ পরিবারের বৃদ্ধা সদস্যার।

কিন্তু দেহ তো ততক্ষণে সৎকার হয়ে গেছে। পড়ে আছে কেবল অস্থি। পুলিশ দ্রুত অন্য পরিবারটির সঙ্গে যোগাযোগ করে। পরিবারের সদস্যরা এলে তাঁদের জানানো হয় তাঁরা তাঁদের পরিবারের মনে করে যে বৃদ্ধার সৎকার করেছেন তিনি তাঁদের পরিবারের বৃদ্ধা নন। কারণ তাঁদের পরিবারের যে বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে তাঁর দেহ অন্য পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছিল।

এবার ২ পরিবারই রেগে আগুন হয়ে যায়। হাসপাতালের গাফিলতি স্পষ্ট হলেও যে দেহ সৎকার হয়ে গেছে তা তো আর ফিরে পাওয়া যাবেনা। অগত্যা পুলিশের মধ্যস্থতায় স্থির হয় যে বৃদ্ধার দেহ ইতিমধ্যেই সৎকার হয়েছে তাঁর অস্থি বৃদ্ধার পরিবারের হাতে তুলে দেবে দাহকার্য সম্পন্ন করা পরিবার। বদলে এই পরিবার তাঁদের হাতে তাঁদের প্রকৃত বৃদ্ধা সদস্যার দেহ তুলে দেবে।

অগত্যা অস্থি হাতে তুলে দিয়ে এবার তাদের পরিবারের সত্যিকারের মৃতা সদস্যার দেহ নিয়ে ফের শ্মশানের দিকে পাড়ি দেয় একবার দাহকার্য সম্পন্ন করা পরিবার। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button