National

রামায়ণের ১৬টি শ্লোকে নাম থাকা নদীর জলে জন্ম নিচ্ছে নতুন দিঘি

রামায়ণের ১৬টি শ্লোকে নাম রয়েছে এ নদীর। সেদিক থেকে এর পৌরাণিক গুরুত্ব যথেষ্ট। তার জল টেনে এনে এবার তৈরি হচ্ছে নতুন দিঘি।

রামায়ণ ভারতের ২টি মহাকাব্যের একটি যা আজও এক চর্চার বিষয়। রামায়ণের শ্লোকগুলি পরীক্ষা করলে অনেক নদীর নাম পাওয়া যায়। যার কয়েকটির আজ অস্তিত্বও নেই। রামায়ণের অন্যতম চর্চিত শহর অযোধ্যার পাশ দিয়ে বয়ে গেছে সরযূ নদী। পরিসংখ্যান বলছে এই সরযূ নদীর নাম রামায়ণে গঙ্গা নদীর পর সবচেয়ে বেশিবার উঠে এসেছে।

রামায়ণের ১৬টি শ্লোকে সরযূ নদীর নাম পাওয়া যায়। ফলে তার আধ্যাত্মিক গুরুত্বও যথেষ্ট। মানুষের নজরে এ এক পবিত্র নদী। রাম মন্দিরকে সামনে রেখে প্রাচীন অযোধ্যা শহরে এখন সাজ সাজ রব। অযোধ্যা শহরের ভোল বদলে গেছে। শুধু দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ বলেই নয়, বিদেশি পর্যটকদের জন্যও তৈরি এই শহর।

অযোধ্যার ওপর চাপ যাতে মাত্রাতিরিক্ত না হয়ে যায় তাই নিউ অযোধ্যা টাউনশিপ নাম দিয়ে অযোধ্যার কাছে গড়ে উঠছে একদম নতুন এক শহর। যেখানে একটি দিঘিও তৈরি করা হচ্ছে।

৪৩০ একর জমির ওপর তৈরি হতে চলা দিঘিটি নির্মাণ করার পর তাকে জুড়ে দেওয়া হচ্ছে সরযূ নদীর সঙ্গে। যাতে এখানে বসবাসকারীদের মনে হয় তাঁরাও অযোধ্যাতেই আছেন। তাঁরাও পবিত্র সরযূর জলই পাচ্ছেন। সেজন্য তাঁদের মূল অযোধ্যা শহর পর্যন্ত যেতে হচ্ছেনা।


এই নতুন প্রকল্পের কাজ ২০২৪ সালেই শুরু হয়ে যাওয়ার কথা। ২০২৪ সালেই রাম মন্দিরের সাড়ম্বর উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। মনে করা হচ্ছে লোকসভা নির্বাচনের আগেই রাম মন্দিরের উদ্বোধন হয়ে যাবে।

তার আগেই হয়তো কাজ শুরু হয়ে যাবে নিউ অযোধ্যা টাউনশিপের। প্রসঙ্গত ভারতের অনেক রাজ্যসরকারই উত্তরপ্রদেশ সরকারের কাছে অযোধ্যায় জমি চেয়ে আবেদন জানিয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button