National

হিন্দুমতে মন্দিরে ইউক্রেনীয় প্রেমিকাকে বিয়ে করলেন রাশিয়ার প্রেমিক

হিন্দু বিবাহ রীতি মেনে তাঁরা বিয়ে করলেন। বাঁধা পড়লেন সাতপাকে। এই ভালবাসা শুধু ২ তরুণ হৃদয় ছাপিয়ে যদি ২ দেশের মধ্যেও হত তাহলে ভাল হত বলে মেনে নিচ্ছেন এঁরাও।

বরের দেশের সঙ্গে কনের দেশের চলতি লড়াই বিশ্বের সকলের জানা। কিন্তু তার জেরে ২টি প্রাণের ভালবাসা আটকে রইল না। কোনও কলহ নয়, নিছক প্রেমের টানে তাঁরা ভারতে এসে বিয়ে করলেন। বিয়ে হল একেবারে হিন্দু রীতি মেনে। সনাতনি হিন্দু বিবাহ রীতি মেনে তাঁরা গাঁটছড়া বাঁধলেন, বাঁধা পড়লেন সাতপাকে।

পরনের পোশাকেও ছিল ভারতের স্পর্শ। রাশিয়ার ছেলে সার্গেই নোভোকভ পরেছিলেন মেরুন কুর্তা-পাজামা আর নেহেরু জ্যাকেট। অন্যদিকে ইউক্রেনের কনে ইলোনা ব্রামোকার পরনে ছিল লাল ও সোনালি লেহেঙ্গা। এছাড়া গলায় ছিল মালা। সোনার অলঙ্কার।

হোমকুণ্ডের সামনে বসে মন্ত্র পড়ে বিয়ে করলেন ২ জনে। পুরোহিত যাবতীয় হিন্দু রীতি মেনেই বিয়ে দিলেন তাঁদের। বিয়েটাও হল মন্দিরে। ঈশ্বরের সামনে। এই ২ বিদেশির হিন্দু বিয়েতে যোগ দেন স্থানীয় মানুষজনও।

হিমাচল প্রদেশের ধরমশালায় এই বিয়ের আসর বসেছিল খারোতা গ্রামের একটি মন্দিরে। বিয়েতে বরকনের কয়েকজন বিদেশি বন্ধুও উপস্থিত ছিলেন।


বিয়ের পর সকলে স্থানীয় লোকগীতির তালে পাও মেলান। আনন্দে মেতে ওঠেন। খাওয়া দাওয়াও হয়। নিমন্ত্রিতদের জন্য ছিল একদম স্থানীয় খাবারের স্বাদে ভরা মেনু।

সব মিলিয়ে এই বিয়ে কিন্তু সকলের কাছে এক অন্য বার্তা পৌঁছে দিল। প্রেমের স্পর্শে মুছে যেতে পারে যাবতীয় কলহ, অশান্তি। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button