National

১ মাসে ৩ হাজার ৪১৯ কোটি টাকা ইলেকট্রিক বিল, দেখেই হাসপাতালে গৃহস্থ

বিদ্যুতের বিল আসার পর কত টাকা এল তা দেখার জন্য বিলটি খুলেছিলেন তিনি। কিন্তু দেখার পর তাঁকে ভর্তি করতে হল হাসপাতালে।

প্রতি মাসে বিদ্যুতের বিল প্রতিটি গৃহস্থকেই মেটাতে হয়। কত আসল তা নিয়ে একটা চাপা উত্তেজনাও থাকে অনেকের। কত টাকা খসবে এই মাসে তাও থাকে চিন্তার তালিকায়।

তবে গ্রীষ্মে, বর্ষায়, শীতে কখন কেমন বিল আসে তার একটা ধারনাও প্রতিটি পরিবারের রয়েছে। এবার সেসব ধারনাকে ওলটপালট করে দিল একটি পরিবারে আসা ইলেকট্রিক বিল।

বিলটি পাওয়ার পর তা খুলে দেখার চেষ্টা করেন বাড়ির বর্ষীয়ান কর্তা। দেখেন এক মাসে তাঁদের ইলেকট্রিক বিল এসেছে ৩ হাজার ৪১৯ কোটি টাকা! ঠিক দেখছেন তো! এমন আবার হতে পারে নাকি!

বারবার বিলটি পরীক্ষা করে দেখেন তিনি। কিন্তু এতবার দেখার পরও বিলের অঙ্ক বদলায় না। যা দেখেছিলেন তা যে তিনি ঠিকই দেখেছিলেন তা বউমাকে ডেকে বিল দেখানোর পর নিশ্চিতও হন।


আর নিশ্চিত একবার হওয়ার পরই তিনি অসুস্থ বোধ করতে থাকেন। শারীরিক অবস্থার এতটাই অবনতি হয় যে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়।

এদিকে এই বিল হাতে পাওয়ার পর গুপ্তা পরিবার বুঝতে পারে যে কোথাও বিদ্যুৎ সংস্থার দিক থেকে কোনও গণ্ডগোল হয়েছে। তারা ওই বিল নিয়ে বিদ্যুৎ সংস্থার অফিসে হাজির হয়। অভিযোগ জানায়।

বিদ্যুৎ সংস্থার তরফে বিষয়টি খতিয়ে দেখে পরে জানানো হয় যে ভুলটা তাদের দিক থেকেই হয়েছে। এজন্য গুপ্তা পরিবারের কাছে দুঃখ প্রকাশও করে তারা।

এরপর ফের সঠিক বিল ওই পরিবারকে পাঠিয়ে দেয় সংস্থা। যাতে বিলের দেয় অঙ্ক লেখা ছিল ১ হাজার ৩০০ টাকা। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button