National

শহরকে রক্ষা করতে বাঁদরদের বনবাসের ব্যবস্থা করল প্রশাসন

শহর জুড়ে বাঁদরের তাণ্ডব বেড়েই চলেছে। এমনকি বাঁদরের হানায় প্রাণও গেছে। তাই এবার বাঁদর মুক্ত শহরের জন্য বনে ভরসা রাখছে প্রশাসন।

ভারতের এমন অনেক শহর রয়েছে যেখানে বাঁদরের দাপাদাপি সহ্যের সীমা ছাড়ায়। টাকাকড়ি, খাবারদাবার কেড়ে নেওয়া থেকে শুরু করে, আঁচড়ে কামড়ে দেওয়া এমনকি প্রাণ পর্যন্ত কেড়ে নেয় এই বাঁদররা।

লখনউ, বারাণসী, বৃন্দাবন, আগ্রা সহ এমন অনেক শহর রয়েছে যেখানে বাঁদরদের উৎপাতে মানুষের শহরে প্রাত্যহিক স্বাভাবিক জীবন কাটানো মুশকিল হয়ে গেছে। তাই এবার বাঁদরদের শহর ছাড়া করতে অন্য পথে হাঁটল লখনউ প্রশাসন।

লখনউ শহরের চারপাশে ৪টি বন তৈরি করছে প্রশাসন। সেখানে গাছ লাগিয়ে জঙ্গল করা হয়েছে। ফলের গাছ প্রচুর পরিমাণে লাগানো হচ্ছে যাতে বাঁদরদের খাবার পেতে কোনও অসুবিধা না হয়।

খাবার পেলে তারা আর শহরে এসে হামলা করবেনা বলেই মনে করছে প্রশাসন। ইতিমধ্যেই লখনউয়ের একটি ধারে উমারিয়া এলাকায় একটি বাঁদর বন তৈরি করা হচ্ছে। ভারতে বাঁদরদের জন্য এভাবে আলাদা করে বনের বন্দোবস্ত করা এই প্রথম।

উমারিয়া বাঁদর বনের নাম দেওয়া হয়েছে লক্ষ্মণ বানর বন। এখানেই শহর থেকে বাঁদরদের স্থানান্তরিত করা হবে। এরপর শহরের অন্য ৩ দিকেও ৩টি বন তৈরি করে শহরের সব বাঁদরকে সেই বনে পাঠানো হবে।

সেখানে তারা যদি শান্তিতে থাকতে পারে তবে শহরে আর অযথা হামলা চালাবে না। তাতে শহরবাসীও শান্তিতে থাকতে পারবেন। এখন বাঁদরদের এই বনবাস দ্রুত সম্পূর্ণ যাতে হয় সে আশায় দিন গুনছেন শহরবাসী। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.