National

হেলমেট না পরে বাইকে চড়ায় হাজার টাকা জরিমানা দিলেন মন্ত্রী

হেলমেট না পরে বাইকে চড়ে রাজপথ ধরে যাওয়ায় ১ হাজার টাকা জরিমানা গুনলেন মন্ত্রী। ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করায় সাধারণ মানুষের মতই জরিমানা হল তাঁর।

শনিবার সকালেই তিনি স্থির করেন যে আচমকা হানা দেবেন স্কুলে। পড়াশোনা কেমন চলছে তা স্বচক্ষে দেখবেন। তিনি স্থানীয় এক বিধায়ককেও সঙ্গে নেন। ওই বিধায়ক বাইক চালিয়ে তাঁকে নিয়ে যান একটি স্কুলে।

এদিকে তাঁদের ২ জনের মাথায়ই হেলমেট ছিলনা। যেজন্য ট্রাফিক আইন মোতাবেক বাইকের মালিকের মোবাইলে এসএমএস যায় যে তাঁর ফাইন হয়েছে।

এদিকে বন্ধুর বাইক নিয়ে রাস্তায় বার হওয়া বিধায়ক জানতে পারেন আসলে তাঁর জরিমানা হয়েছে। কারণ বাইক তিনি চালাচ্ছিলেন, বাইকের মালিক নয়। একথা জানার পর তখন কোনও পদক্ষেপ না করে তাঁরা স্কুলে হাজির হন।

ওই স্কুলে তৃতীয় শ্রেণিতে চলছিল অঙ্কের ক্লাস। ওড়িশার বিদ্যালয় ও সর্বশিক্ষা মন্ত্রী সমীর রঞ্জন দাস বালাসোরের বিধায়ক স্বরূপ দাসকে নিয়ে সেই সময় স্কুলে হাজির হন।

ক্লাসে ছাত্রদের ৩-এর ঘরের নামতা জিজ্ঞেস করেন তিনি। ছাত্ররা বলতে না পারায় ক্ষুব্ধ হয়ে বেরিয়ে যান স্কুল থেকে। এরপর সোজা হাজির হন থানায়।

সেখানে হেলমেট ছাড়া বাইকে চড়ার জন্য জরিমানা বাবদ ১ হাজার টাকা জমা দেন মন্ত্রী। থানা থেকে বেরিয়ে তিনি ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষিকাকে শোকজ করার নির্দেশ দেন।

এও নির্দেশ দেন যে ওই স্কুলের ছাত্ররা যতক্ষণ না ১৫-র ঘর পর্যন্ত নামতা ঠিকঠাক বলতে পারছে ততদিন যেন শিক্ষিকার বেতন বন্ধ রাখা হয়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.