National

প্রথম দিন ঘোড়ায় চড়ে স্কুলে ঢোকে ছাত্রছাত্রীরা, সেলফি জোনে তোলে ছবি

স্কুলের প্রথম দিনটা চিরদিনের করে রাখার এমন এক অভিনব পরিকল্পনা নিয়ে এখন সারা দেশজুড়েই চর্চা শুরু হয়েছে। এক শিক্ষকের প্রথম মাথায় আসে এই পরিকল্পনা।

যে কোনও শিশুর জীবনে স্কুলের প্রথম দিনটা মনে রাখার মত হওয়া উচিত। শিক্ষা জীবনে তার প্রথম পদক্ষেপটা চিরদিনের হয়ে থাকা উচিত। যাতে বড় হওয়ার পরও সেই দিনটা তার স্মৃতির মণিকোঠায় অত্যন্ত সযত্নে লালিত হতে পারে।

এ সুখস্মৃতি জীবনের প্রতিটি অধ্যায়ে তার সঙ্গী হয়ে থাকবে। তাই স্কুলের প্রথম দিনটা মনে রাখার মত করে তুলতে এক অভিনব উদ্যোগ শুরু করেছে একটি স্কুল।

সেখানে ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা প্রতিবছরই ভর্তি হয়। স্কুলের প্রথম দিনটা তাদের যাতে মনে রাখার মত হয় সেজন্য ওই স্কুলেরই এক শিক্ষক একটি ঘোড়া নিয়ে আসেন।

স্কুল জীবনের প্রথম দিনে যখন কোনও ছাত্র ছাত্রী ওই স্কুলে আসে তখন তাকে ঘোড়ায় চড়িয়ে স্কুলে প্রবেশ করানো হয়। তারপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় সেলফি জোনে।

সেখানে সে বসে থাকে ঘোড়ার পিঠে, আর তার পাশে থাকেন তার অভিভাবক থেকে শিক্ষকরা। ছবি ওঠে। সেই ছবি চিরদিনের করে রেখে দেয় তার স্কুল জীবনের প্রথম দিনটাকে। গুজরাটের বরোদা জেলার সাভলি তালুকের চোরপুরা-র একটি স্কুলে এই ব্যবস্থা চালু হয়েছে। যা নিয়ে তারিফের বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

যে কোনও ছাত্রছাত্রীর কাছে স্কুলে আসার একটা আকর্ষণ থাকা প্রয়োজন। এজন্য স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে পড়ার বাইরেও নানা আয়োজন করা দরকার বলে মনে করেন এক প্রাথমিক শিক্ষা আধিকারিক। এভাবে ছাত্রছাত্রীদের স্কুলে আসার আগ্রহও বাড়বে। পড়াশোনা ছাড়ার প্রবণতাও কমবে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.