National

গোয়ালঘরের সঠিক যত্ন না নেওয়ায় শাস্তির মুখে ৯ চিকিৎসক

গোয়ালের ঠিকমত যত্ন নেননি তাঁরা। এটাই তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ। আর তার জেরে বড় ধরনের শাস্তির মুখে ৯ চিকিৎসক। ৯ জনকেই শোকজ করা হয়েছে।

গোয়ালের দায়িত্ব ছিল তাঁদের ওপর। কিন্তু তাঁদের কাজে গাফিলতি ধরা পড়েছে। ধরে পড়েছে চরম অবহেলাও। আবার আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগও রয়েছে তাঁদের ওপর।

গরুদের যত্ন নেওয়ার দায়িত্ব যাঁদের ওপর ছিল সেই ৯ পশু চিকিৎসক এখন তোপের মুখে পড়েছেন। তাঁদের বিরুদ্ধে শোকজ নোটিস জারি হয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে যাতে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হয় সেজন্যও যাবতীয় তৎপরতা শুরু হয়েছে।

একটা গোয়াল বলেই নয়, একের পর এক গোয়াল বা গোশালায় এমন অবহেলার ছবি ধরা পড়েছে প্রশাসনিক আধিকারিকদের চোখে। অভিযোগ উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যা, বারাবাঁকি এবং আজমগড়ে গোশালায় কর্তব্যে গাফিলতির ঘটনা সামনে এসেছে।

গোশালায় কর্মী নিয়োগ থেকে জিনিসপত্র কেনা, সবেতেই দুর্নীতি ধরা পড়েছে। নিয়মের তোয়াক্কা না করে যথেচ্ছভাবে অর্থের নয়ছয় হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে ৯ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। গোশালা যত্নের দায়িত্ব গুরুত্বের সঙ্গে না নেওয়ায় মিসরিখ এবং কৌশাম্বীর পশু চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

অনেকগুলি গোশালার বেহাল দশা ঠিক করতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা শুরু করেছে উত্তরপ্রদেশের পশু কল্যাণ দফতর। গোশালাগুলিকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে। জোর দেওয়া হচ্ছে গোশালাগুলির পরিচালনেও।

পশু কল্যাণ দফতরের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব রজনীশ দুবে জানিয়েছেন, গোশালা নিয়ে কোনও গা ছাড়া মনোভাব বরদাস্ত করা হবে না। দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.