National

ভারত বন্‌ধের দেশজুড়ে প্রভাব সামনে, হাওড়া স্টেশনে কড়া নিরাপত্তা

ভারত বন্‌ধের প্রভাব কেমন তা সোমবার দুপুরের মধ্যেই পরিস্কার হয়ে গেল। এদিকে ভারত বন্‌ধের কথা মাথায় রেখে হাওড়া স্টেশন চত্বরে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়।

সেনাবাহিনীতে যোগদান করার স্বল্পকালীন প্রকল্প অগ্নিপথ নিয়ে গত সপ্তাহ থেকেই উত্তাল দেশের বেশ কয়েকটি রাজ্য। অগ্নিপথ প্রকল্প নিয়ে ব্যাপক বিরোধিতা সত্ত্বেও কেন্দ্র নিয়োগ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি দিতে চলেছে। এর মাধ্যমে কেন্দ্র বুঝিয়ে দিয়েছে তারা অগ্নিপথ থেকে সরছে না।

এদিকে অগ্নিপথের বিরুদ্ধে এদিন ভারত বন্‌ধের ডাক দেয় কয়েকটি সংগঠন। ফলে সকাল থেকেই প্রতিটি রাজ্য প্রশাসন সতর্ক ছিল।

সকাল থেকেই এ রাজ্যের হাওড়া স্টেশন চত্বরে ব্যাপক পুলিশি নিরাপত্তা নজরে পড়ে। তবে রাজ্যের বাকি অংশে দুপুর পর্যন্ত ভারত বন্‌ধে তেমন কোনও প্রভাব পড়েনি।

ভারত বন্‌ধের প্রভাব কেমন তা সোমবার দুপুরের মধ্যেই পরিস্কার হয়ে যায়। দিল্লিতে এর প্রভাব কিছুটা পড়েছে। দিল্লি সীমানায় পুলিশি কড়াকড়ির জেরে প্রবল যানজটের সৃষ্টি হয়। হাজার হাজার গাড়ি স্তব্ধ হয়ে দাঁড়িয়ে পড়ে।

অগ্নিপথে রেলের ওপর সবচেয়ে বেশি আক্রমণ নেমে এসেছে গত কয়েকদিনে। তাই এদিন কোনও ঝুঁকি না নিয়ে ৫০০-র ওপর ট্রেন বাতিল করা হয়। বিহারে এদিনও দিনের আলোয় কোনও ট্রেন চলাচল করছেনা।

দিল্লির যন্তরমন্তরে যুব কংগ্রেসের তরফে একটি ধর্না শুরু হয় সকাল থেকে। অগ্নিপথ প্রকল্প প্রত্যাহারের দাবিতে এই ধর্না শুরু হয়।

এদিকে বিহারের ২০টি জেলায় ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। হরিয়ানার ফতেহাবাদে একটি পথ অবরোধের ঘটনা ঘটে সকালে। ফরিদাবাদ ও নয়ডায় ৪ জনের বেশি মানুষের একসঙ্গে এক জায়গায় জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। এছাড়াও বেশ কয়েকটি জায়গায় পথ অবরোধের চেষ্টা হয়েছে। তবে মোটের ওপর ভারত বন্‌ধে প্রভাব সেভাবে পড়েনি। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.