National

বিয়ের দিনে অনুষ্ঠানের ফাঁকেও কাজটা চালিয়ে গেলেন এক শিক্ষক

বিয়ের দিনটা সকলের কাছেই বিশেষ। ওইদিন আর কিছু করা থেকে নিজেদের বিরত রাখেন হবু স্বামীস্ত্রী। কিন্তু পেশায় এক শিক্ষক নিজের বিয়ের দিনটাও বাদ দিলেন না।

বিয়ের দিনটা অন্তত বাদ রাখা হয়তো যেত। ওইদিনটা পরিবারের জন্য, নিজের জন্য আলাদা করে রাখাটাই স্বাভাবিক ছিল। বাকি সব কিছুর জন্য তো বছরের বাকি সবকটা দিনই পড়ে আছে।

অনেকে তো বিয়ের জন্য ছুটিও নিয়ে রাখেন আগে থেকে। আর বিয়ের জন্য ছুটি দিতে কোনও সংস্থাও অরাজি হয়না। কিন্তু এক শিক্ষক সে রাস্তায় হাঁটলেন না।

বিয়ের দিন সকালে প্রথা মেনে ছিল মহিলাদের কিছু আচার। সেটা সেরেই তিনি তাঁর প্রাত্যহিক কাজে লেগে পড়েন। অথচ কিছুক্ষণ পরেই তাঁর বিয়ে।

রাজস্থানের আলওয়ারের ওই শিক্ষক কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স পড়ান। তিনি গত ২ বছরে একটি বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন। ওই সময়ে সারা ভারত সহ বিশ্ব যখন দফায় দফায় থমকে গেছে তখন অনলাইনে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ছাত্রছাত্রীকে পড়ানোর রেকর্ড গড়েন তিনি।

প্রিয় কুমার গৌরব নামে ওই শিক্ষক এখন শিক্ষা রথ নামে একটি প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত। দিল্লির একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এই শিক্ষা রথ চালাচ্ছে।

এখানে মূলত শিক্ষার সুযোগ থেকে বঞ্চিত ছাত্রছাত্রীদের পড়ানো হয়। যা আপাতত অনলাইনে হচ্ছে। ওই সংস্থা অবশ্য গৌরবকে বিয়ের জন্য ছুটি দিতে প্রস্তুত ছিল। কয়েক দিনের ছুটি পেতেই পারতেন গৌরব। কিন্তু তিনি বিয়ের দিনটাও পড়ানো থেকে দূরে থাকতে চাননি।

গৌরব সংস্থাকে জানিয়ে দিয়েছিলেন যে বিয়ের দিনও তিনি তাঁর ক্লাস নির্দিষ্ট সময়েই নেবেন। তার অন্যথা হবেনা।‌ গৌরব কথা রাখেন। তিনি বিয়ের দিনও অনুষ্ঠানের ফাঁকে ঠিক সময় বার করে ক্লাস নিয়ে নেন। শিক্ষকের এই দায়িত্ববোধের তারিফ এখন সর্বত্র।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.