National

এই প্রথম মাটি খুঁড়ে উদ্ধার হল প্রাচীন আলো, লেখা হল নতুন ইতিহাস

দেশের প্রত্নতত্ত্বের ইতিহাসে এক নয়া মাইলফলক যুক্ত হল। এই প্রথম পাওয়া গেল এক বিশেষ ধরনের প্রাচীন বাতি। যাকে অবশ্যই এক বড় প্রাপ্তি হিসাবে দেখছেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা।

ভারতের নানা প্রান্তে প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনের খোঁজে খননকার্য চলতে থাকে। প্রত্নতাত্ত্বিকরা যদি সামান্য ইঙ্গিতও পান যে কোথাও মাটির তলায় ইতিহাস লুকিয়ে থাকতে পারে, তাহলেই তাঁরা রাতদিন এক করে খনন চালান।

সাফল্য যে সবসময় পান তাও নয়। তবে এক্ষেত্রে পেয়েছেন তাঁরা। আর যা পেয়েছেন তা অবশ্যই ভারতীয় প্রত্নতাত্ত্বিক ইতিহাসে এই প্রথম।

এই প্রথম মাটি খুঁড়ে পাওয়া গেল এক প্রাচীন বাতি। যা টেরাকোটা শিল্পশৈলীতে তৈরি। যার গায়ে ভরে আছে নানা কারুকার্য। এমন একটি বাতি এই প্রথম মাটি খুঁড়ে পাওয়া গেল এ দেশে।

তামিলনাড়ুর বিরুদ্ধনগর জেলায় ভেম্বাকোট্টাই এলাকায় খননকার্য চালিয়ে এটি মাটির তলা থেকে উদ্ধার হয়। এর আগেও প্রাচীন বাতি পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু তার ভাঙা অংশই উদ্ধার হয়েছিল। পুরোটা উদ্ধার হয়নি।


এই প্রথম একটি পুরো টেরাকোটার বাতি উদ্ধার করা সম্ভব হল। যা পরীক্ষা করে অনেক তথ্য পাওয়া যেতে পারে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা।

যাঁরা এ বিষয়ে যথেষ্ট খবর রাখেন তাঁদেরই একজন আর বালাচন্দ্রন। তিনি জানিয়েছেন, এই টেরাকোটা ল্যাম্প পাওয়া গুপ্তধন পাওয়ার চেয়ে কম নয়।

তাঁর আশা এই এলাকায় খননকার্য চালিয়ে গেলে এখান থেকে এমন আরও প্রাচীন বাতি পাওয়া যেতে পারে। ওই এলাকায় খননকার্য কিন্তু চালিয়ে যাচ্ছেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button