National

বাসে ওঠায় জরিমানার মুখে পড়ল মোরগ

চেষ্টার ত্রুটি হয়নি, যাতে নজরে না পড়ে। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। সেই নজরেও পড়ল। আর পড়া মাত্র জরিমানার মুখেও পড়ল একটি বড়সড় মোরগ।

লাল ঝুঁটি মোরগ সকলের অলক্ষ্যে বেশ ছুটে চলেছিল বাসে চেপে। বাসের অন্য যাত্রীরাও নজর করেননি। এমনভাবেই তা কাপড়ের তলায় লুকোনো ছিল। এভাবে অনেকটা পথ অতিক্রম করাও হয়ে গিয়েছিল।

মোরগও কোনও বেগড়বাঁই করেনি। যা তার মালিককে সমস্যায় ফেলে দিতে পারে। কিন্তু তার পরেও শেষরক্ষা হল না। একজন কি যেন মোটা কাপড়ের মধ্যে বারবার লুকোনোর চেষ্টা করছেন! বিষয়টি লক্ষ্য করার পরই বাসের কন্ডাক্টর এগিয়ে আসেন।

কি লুকোচ্ছেন কাপড়ের তলায়? আর লুকোনোর উপায় নেই বুঝে মোরগের মালিক বাধ্য হন স্বীকার করতে যে তিনি একটি মোরগ নিয়ে যাত্রা করছেন।

কন্ডাক্টর সাফ জানান বাসে যে কোনও প্রাণি উঠলেই তাকে টাকা দিতে হবে। মোরগটিও প্রাণি। তাই তাকে এভাবে যাত্রা করার জন্য ৩০ টাকা জরিমানা করা হল।


মোরগের হয়ে ৩০ টাকা দিতে হবে তার মালিককে। এ নিয়ে তুমুল ঝগড়া বেঁধে যায়। যা অন্য যাত্রীরা ক্যামেরাবন্দিও করেন। তার পর তা পাবলিশ করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এমন এক কাণ্ড ছড়িয়ে পড়তে সময় নেয়নি।

ঘটনাটি ঘটে তেলেঙ্গানার করিমনগর জেলায়। পেড্ডাপল্লি থেকে করিমনগর শহরে যাচ্ছিল বাসটি। মাঝপথে এই ঘটনা। এদিকে ঘটনাটি তেলেঙ্গানা পরিবহণ নিগমের বড়কর্তাদের নজরে আসতে ফ্যাসাদে পড়েছেন কন্ডাক্টর।

পরিবহণ দফতরের কর্তাদের মতে, কন্ডাক্টর জি তিরুপতি মোরগকে জরিমানা করে সঠিক কাজ করেননি। এতে তো তিনি মোরগটিকে যাত্রার সুযোগ করে দিলেন।

নিয়ম হল বাসে মানুষ ছাড়া অন্য কোনও প্রাণি নিয়ে যাত্রা করা যায়না। সেক্ষেত্রে কন্ডাক্টরের উচিত ছিল মোরগ নিয়ে তার মালিককে নেমে যেতে বলা। কিন্তু তিনি তা কেন করেননি তার জবাবদিহি চাওয়া হবে তাঁর কাছে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button