National

দেশে এই প্রথম মিলছে পৃথিবীর ১৭৫ কিলোমিটার গভীরের পাথর দেখার সুযোগ

এমন উদ্যোগ এই প্রথম নেওয়া হল। দেশে আত্মপ্রকাশ করল এমন এক অনন্য সংগ্রহশালা। যা মানুষকে হতবাক করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

এমন এক মিউজিয়াম থাকলে ভাল হয় একথা অনেক সময়ই ভাবা হয়েছে। তবে তৈরি হয়ে ওঠেনি। এই প্রথম ভারতে এমন এক মিউজিয়াম তৈরি হল। বৃহস্পতিবারই আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হল এই অন্য মিউজিয়ামের। যেখানে রয়েছে ৩৫ রকম পাথর।

প্রতিটি পাথর এক একটা আশ্চর্য। এক একটা ইতিহাস ও যুগের কথা সামনে আনছে। মানুষ তা স্বচক্ষে দেখার সুযোগ পাচ্ছেন। এই পাথরগুলির কোনওটার বয়স যেমন ৩৩০ কোটি বছর, তেমনই এমন পাথরও রয়েছে তুলনায় যা অনেকটাই তরুণ। যার বয়স সাড়ে ৫ লক্ষ বছর।

এই সাড়ে ৫ লক্ষ বছর পুরনো পাথর থেকে শুরু করে ৩৩০ কোটি বছর পুরনো পাথর দেখার সুযোগ পাওয়া মুখের কথা নয়। এসব পাথর কিন্তু বিদেশ থেকে আনা হয়নি। সংগ্রহ করা হয়েছে ভারতেরই বিভিন্ন প্রান্ত থেকে।

এমন পাথরও এই মিউজিয়ামে রয়েছে যা পৃথিবীর হৃদয়ের কাছে থাকে। ভূপৃষ্ঠ থেকে ১৭৫ কিলোমিটার গভীরে যে পাথর রয়েছে তাও এই মিউজিয়ামে রাখা রয়েছে। যা পৃথিবীর অতিগভীর সম্বন্ধে মানুষের জ্ঞান বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে, আবার চোখও ধাঁধিয়ে দেবে।

ভারতের ভূবিজ্ঞান মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং হায়দরাবাদে এই মিউজিয়ামটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বৃহস্পতিবার। এমন মিউজিয়াম ভারতে এই প্রথম।

প্রথম এমন ওপেন রক মিউজিয়াম আত্মপ্রকাশ করল দেশে। আগামী দিনে ভারত ভূবিজ্ঞানে এক অনন্য ভূমিকা নেবে বলেও আশা প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button