National

কাশ্মীরে শুরু ৪০ দিনের চিল্লাই কলন, কলের জলও এ সময়ে বরফ হবে

কাশ্মীরে প্রতিবছর এই ৪০টি দিন অতিভয়ংকর ঠান্ডা নিয়ে হাজির হয়। যাকে স্থানীয়রা বলেন চিল্লাই কলন। যা শুরু হচ্ছে আগামী মঙ্গলবার থেকে।

কাশ্মীর হোক বা লাদাখ, এবছর সেখানে কনকনে ঠান্ডা ক্রমশ কাবু করতে থাকে অক্টোবর মাসের শেষ থেকেই। নভেম্বর জুড়ে প্রবল ঠান্ডা দেখেছে ভূস্বর্গ। তুষারপাতও শুরু হয়। ডিসেম্বরে তার প্রাবল্য বেড়েছে। গোটা কাশ্মীর প্রায় মাইনাসে চলে যায়। সাদা হয়ে যায় চারধার।

সেটাও কার্যত ছিল ট্রেলার। বলা যায় কাশ্মীরের প্রাক শীত পর্ব। কারণ কাশ্মীরে যে ৪০ দিনের হাড় কাঁপানো ঠান্ডা কামড়ে ধরে, তা শুরু হচ্ছে আগামী মঙ্গলবার থেকে। ৪০ দিন ব্যাপী এই অতি প্রবল ঠান্ডাকে স্থানীয়রা বলেন চিল্লাই কলন।

ইতিমধ্যেই কাশ্মীরের বিখ্যাত ডাল লেক সম্পূর্ণ বরফ হয়ে গেছে। পুরু বরফের চাদরের ওপর হেঁটে বেড়াচ্ছেন মানুষজন, পাখি। বিভিন্ন জায়গায় যেসব ঝরনা রয়েছে সেগুলি সবই তুষারে রূপান্তরিত হয়েছে। ফলে সেখানে জল যেভাবে পড়ছিল সেভাবে লম্বা লম্বা বরফের দণ্ড তৈরি হয়েছে জমে গিয়ে।

এমনকি অধিকাংশ জায়গায় বাড়িতে যে কলে জল সরবরাহ হয় সেসব কলে জল বরফ হয়ে গেছে। ফলে কল খুললে জল পড়ছে না।

এই পরিস্থিতি সবচেয়ে ভয়ংকর চেহারা নেবে আগামী ৪০ দিন। এই ৪০ দিন এক ভয়ংকর ঠান্ডায় দিন কাটাবেন স্থানীয়রা। ইতিমধ্যেই দ্রাসে মাইনাস ১৯ ডিগ্রি এবং লেহ-তে মাইনাস ১৮ ডিগ্রিতে নেমেছে পারদ। শ্রীনগরে পারদ পৌঁছেছে মাইনাস ৫.৮ ডিগ্রিতে। সাদা হয়ে গিয়েছে গোটা শ্রীনগর শহর। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button