National

ঘন জঙ্গলে দুর্ধর্ষ লড়াই, শেষ ২৬ মাওবাদী

সকালে কয়েক ঘণ্টার গুলির লড়াইয়ে মিলল বড়সড় সাফল্য। ২৬ জন মাওবাদীকে শেষ করল পুলিশ। এত বড় সাফল্য ইদানিংকালে পাওয়া যায়নি।

মাওবাদী দমনে পরপর সাফল্য এসেই চলেছে। বৃহস্পতিবারই মাওবাদী শীর্ষ নেতা প্রশান্ত বসুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। যাঁর মাথার দামই ছিল ১ কোটি টাকা! প্রশান্ত বসুর গ্রেফতারি দেশে মাওবাদী কার্যকলাপের বড় ধাক্কা হবে বলে মেনে নিচ্ছেন পুলিশ কর্তারা। তারপরেই এল ফের এক বড় সাফল্য। তাও ২ দিনের মধ্যে।

শনিবার সকালে মহারাষ্ট্র পুলিশের সি-৬০ কমান্ডোর একটি দল গড়চিরোলির মারদিনটোলা জঙ্গলে মাওবাদীদের খোঁজে হানা দেয়। তল্লাশি চলে জঙ্গলে।

সকালের আলো থাকলেও ঘন জঙ্গলে মাওবাদীদের তল্লাশি করতে গিয়ে অনেকবার বিপদে পড়েছে পুলিশ বা সিআরপিএফ। এদিনও তাদের ওপর আচমকা হামলা চালায় মাওবাদীরা।

ঘন জঙ্গলের মধ্যেই শুরু হয় মাওবাদীদের সঙ্গে কমান্ডোদের গুলির লড়াই। এই লড়াই চলে বেশ কয়েক ঘণ্টা। তারপর গুলিযুদ্ধ থামলে পুলিশ জঙ্গলের মধ্যে থেকে মাওবাদীদের ২৬ জনের দেহ উদ্ধার করে।

তাদের মধ্যে মাওবাদীদের এক নেতাও ছিল বলে জানতে পারা গেছে। এদের সকলের পরিচয় এখনও জানা যায়নি। তবে তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

এদিকে এই গুলির লড়াইয়ে ৪ জন কমান্ডো আহত হয়েছেন। তাঁদের দ্রুত এয়ারলিফ্ট করে নাগপুরে আনা হয়। সেখানে হাসপাতালে তাঁদের চিকিৎসা চলছে।

তবে একদিনে ১ মাওবাদী নেতা সহ ২৬ জন মাওবাদীকে হত্যা করাকে বড় সাফল্য বলেই মনে করছেন পুলিশ আধিকারিকরা। এতে ওই অঞ্চলে মাওবাদী তাণ্ডব অনেকটাই কমবে বলে মনে করছেন তাঁরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.