National

১২০০ কোটি টাকার অক্সিজেন উপহার দিচ্ছেন গাছ মানুষ

তাঁকে সকলে চেনেন গাছ মানুষ হিসাবে। আজ ৭০ বছর বয়সে এসে সমাজকে তাঁর উপহার ১ হাজার ২০০ কোটি টাকা মূল্যের তাজা অক্সিজেন।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ বুঝিয়ে দিয়েছে অক্সিজেন মানুষের জীবনে কতটা জরুরি। অথচ গাছ কেটে মানুষই প্রকৃতি থেকে পাওয়া এই অনন্য দানকে নির্বিচারে শেষ করে দিচ্ছে। মরুরাজ্যে গাছ মানুষ নামে পরিচিত হিম্মারাম ভানভু ঠিক এই জায়গাটাই চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছেন। তাঁর মতে এভাবে চলতে থাকলে একটা সময় মানুষকে সঙ্গে অক্সিজেন নিয়ে ঘুরতে হবে।

ছোট বেলায় হিম্মারাম ভানভুর ঠাকুমা তাঁকে বুঝিয়েছিলেন গাছ বাঁচানো কতটা জরুরি। পশু, পাখিদের নিশ্চিন্ত আশ্রয় দেওয়া কতটা শান্তির।

ঠাকুমার শিক্ষায় প্রভাবিত হয়ে হিম্মারাম বাড়ির কাছেই একটি অশ্বত্থ গাছের চারা পোঁতেন। সেই গাছ এখন এতটাই বিশাল আকার নিয়েছে যে তা ৫০০ জন মানুষকে একসঙ্গে ছায়া দিতে পারে।

খুব গরমে সেখানে বিশ্রাম নেন গ্রামবাসীরা। সেই অশ্বত্থ গাছ দিয়ে শুরু করে আজ পর্যন্ত সাড়ে ৫ লক্ষ গাছ পুঁতেছেন হিম্মারাম। যার মধ্যে সাড়ে ৩ লক্ষ গাছ এখন মহীরুহ। সেই গাছ সারাদিনে যা অক্সিজেন দেয় তা ১ হাজার ২০০ কোটি টাকা মূল্যের অক্সিজেনের সমান।

এখন রাজস্থানে হিম্মারাম ভানভু গাছ মানুষ নামে পরিচিত। নিজের একটি ৬ হেক্টর ক্ষেত জমি ছিল হিম্মারামের। সেই জমিতে তিনি চাষাবাদ করতেই পারতেন। কিন্তু জমিটিতে তিনি বড় গাছের চারা লাগান। সেখানে এক সময় তৈরি হয় বিশাল বিশাল ১১ হাজার গাছের ঘন জঙ্গল।

এখন সেখানেই ৩০০টি ময়ূর, শতাধিক হরিণ ও অন্যান্য পশুপাখি নিশ্চিন্তে থাকে। ৭০ বছর বয়সে এসেও হিম্মারামের বৃক্ষরোপণের ইচ্ছায় খামতি নেই। এখনও ২ লক্ষ গাছ লাগানোর পরিকল্পনা রয়েছে তাঁর। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button