National

জাল ভেঙে বেরিয়ে চিড়িয়াখানায় ঘুরে বেড়াল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার

জালের পিছনে থাকা বাঘ দেখতে যতটাই আনন্দের, সেই বাঘ খাঁচার বাইরে বেরিয়ে এলে ততটাই আতঙ্কের। তেমনই ঘটনা ঘটল নন্দনকানন চিড়িয়াখানায়।

প্রথমে কিছুই বোঝা যায়নি। হঠাৎই নজরে পড়ে চিড়িয়াখানার এক কর্মীর। তিনি সতর্ক করেন। তারপরেই হুলস্থূল পড়ে যায়।

যাতে দর্শকদের মধ্যে কোনও আতঙ্কের সৃষ্টি না হয় তাই হুলস্থূল সীমাবদ্ধ ছিল চিড়িয়াখানার কর্মী ও আধিকারিকদের মধ্যে। তাঁরা দ্রুত চিড়িয়াখানা থেকে সব দর্শককে বার করার উদ্যোগ শুরু করেন।

কিছুক্ষণের মধ্যেই পুরো চিড়িয়াখানা ফাঁকা করে দেওয়া হয়। সব গেট বন্ধ করে দেওয়া হয়। তারপর শুরু হয় খানাতল্লাশি। চিড়িয়াখানার কর্মীরা তন্নতন্ন করে খোঁজ শুরু করেন।

অবশেষে তার দেখা পাওয়া যায়। মনের আনন্দে চিড়িয়াখানায় ঘুরে বেড়াচ্ছে সে। একটি জায়গায় তার দেখা পাওয়ার পর হাঁফ ছেড়ে বাঁচে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। ফের পাকড়াও করা হয় তাকে। তারপর রেখে আসা হয় জালের পিছনে। যেখানে সে এতদিন ছিল।

যার কথা বলা হচ্ছে সে একটি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। ওড়িশার বিখ্যাত নন্দনকানন চিড়িয়াখানায় বাঘের জন্য যে ঘেরা জায়গা রয়েছে সেই চত্বর জাল দিয়ে মোড়া। সেই লোহার জালে মরচে পড়েছিল। ফলে তা দুর্বল হয়ে পড়ে।

কোনওভাবে সেই অংশে এই বাঘটি থাবা বসায়। ফলে মরচে পড়া জাল ভেঙে যায়। সেই জালের ফাঁক গলে বেরিয়ে পড়ে ওই বাঘ। তারপর চিড়িয়াখানায় বিচরণ শুরু করে। যা অবশ্যই দর্শকদের জীবন সংশয় তৈরি করেছিল।

কারণ যদি কোনওভাবে একজন দর্শকও বাঘের সামনে পড়তেন তাহলে যে কোনও কিছু ঘটে যেতে পারত। অবশ্য এ যাত্রায় তেমন কিছু হয়নি। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button