National

মেঘ ভাঙা বৃষ্টির প্রলয় নাচে মৃত কমপক্ষে ৫ জন, নিখোঁজ ৪০

মেঘ ভাঙা যে কতটা ভয়ংকর হতে পারে তা ফের একবার প্রমাণ হল। মেঘ ভাঙা বৃষ্টিতে একটি এলাকা তছনছ হয়ে গেল। মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ৫ জনের।

কয়েক দিন ধরেই বৃষ্টি চলছিল। তা ক্রমশ বেড়ে চলেছিল। কিন্তু বৃষ্টি এক আর মেঘ ভাঙা বৃষ্টির রূপ আর এক। সে যে কতটা ভয়ংকর দানব রূপ ধারণ করে তা হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছেন যাঁরা তা প্রত্যক্ষ করেছেন।

এমনই এক মেঘ ভাঙা বৃষ্টি দেখলেন জম্মু কাশ্মীরের কিস্তওয়ার জেলার হোনজার গ্রামের বাসিন্দারা। মেঘ ভাঙা বৃষ্টিতে গ্রামের ৮টি বাড়ি ভেঙে গিয়েছে। মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ৫ জনের।

কমপক্ষে বলা হচ্ছে কারণ ৩০ থেকে ৪০ জন নিখোঁজ। ফলে তাঁরা বেঁচে আছেন কিনা তা অজানা। মেঘ ভাঙা বৃষ্টির জেরে যে হড়পা বান মুহুর্তে জন্ম নেয় তার তোড়েই ভেসে গেছেন অনেকে। অনেক জায়গা ধুয়ে গেছে এই বানের জলে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র প্রসাদ জানিয়েছেন, মেঘ ভাঙা বৃষ্টিতে বিধ্বস্ত এলাকা থেকে আহত ও দুর্গত মানুষজনকে হেলিকপ্টারের সাহায্যে উদ্ধার করার বন্দোবস্ত করা হয়েছে।


জম্মু কাশ্মীরের একটা বড় অংশ জুড়েই প্রবল বৃষ্টি চলছিল গত কয়েকদিন ধরে। আশার কথা শোনাতে পারেনি আবহাওয়া দফতর। পূর্বাভাস রয়েছে এই মাসের শেষ পর্যন্ত এখানে বৃষ্টি আরও বাড়বে।

ফলে পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হচ্ছে। আবহাওয়া দফতরের তরফে সতর্ক করে জানানো হয়েছে প্রবল বৃষ্টির জেরে নদী থেকে নালা, জলাশয় সর্বত্র জল বাড়বে। তার জেরে এসব নদী নালার আশপাশে থাকা বাসিন্দারা বন্যার মুখে পড়তে পারেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button