National

বাসের চাকায় পিষে মৃত রাস্তায় শুয়ে থাকা ১৮ জন

বাসের চাকায় পিষে মারা গেলেন ১৮ জন। রাস্তায় রাতে শুয়ে ছিলেন তাঁরা। ঘুমন্ত মানুষগুলোর ওপর দিয়ে চলে যায় বাসের চাকা।

বাস ছাড়ার পর ঘণ্টা দুয়েক ঠিকঠাক চলেছিল সেটি। তারপরই হাই রোডের ওপর থমকে যায় বাসের চাকা। বাসের চালক জানান সারাতে সময় লাগবে। ফলে বাসের সব যাত্রীই নেমে পড়েন বাস থেকে।

হাই রোডের ওপর তখন রাত। কেউ আশপাশে গাছের তলায় বসে খাওয়া দাওয়া করতে থাকেন। কেউ গল্পে মজে যান। অন্যরা রাস্তার ওপরই চাদর পেতে শুয়ে পড়েন একটু ঘুমিয়ে নেওয়ার জন্য।

বাসের সামনেই সারি দিয়ে শুয়ে পড়েন তাঁরা। ঘড়ির কাঁটায় তখন রাত ১১টা। রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে থাকা বাসটির পিছনে আচমকাই এসে ধাক্কা মারে একটি প্রবল গতিতে ছুটে আসা লরি। ধাক্কার জেরে বাসটি সামনের দিকে এগিয়ে যায়।

বাসের সামনে শুয়ে থাকা ১৮ জনের ওপর দিয়ে চলে যায় বাসের চাকা। ঘটনাস্থলেই পিষে মৃত্যু হয় তাঁদের। রক্তাক্ত দলা পাকানো দেহগুলি বাসের চাকার সঙ্গে জড়িয়ে যায়।


বেশ কয়েকজন আহতও হন। পরে পুলিশ এসে বাসের চাকার তলা থেকে এক এক করে দেহ উদ্ধার করে। আহতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মঙ্গলবার রাত ১১টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বারাবাঁকি জেলায়। বাসটি হরিয়ানার আম্বালা থেকে যাত্রা শুরু করেছিল রাত ৮টা নাগাদ।

বাসে ১৩০ জন যাত্রী ছিলেন। সকলেই বিহারের বাসিন্দা। তাঁরা হরিয়ানায় শ্রমিকের কাজ করেন। মঙ্গলবার সকলে একটি বাসে করে বাড়ি ফিরছিলেন। মাঝরাস্তায় ঘটনাটি ঘটে।

এদিকে এই ঘটনার খবর পেয়ে ট্যুইট করে মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button