National

মাসে ৩ দিন করে অতিরিক্ত ছুটি চাই, দাবিতে সরব শিক্ষিকারা

মাসে তাঁদের ৩ দিন করে অতিরিক্ত ছুটি লাগবে। এই দাবিতে এবার সরব হলেন শিক্ষিকারা। ইতিমধ্যেই তাঁরা বিভিন্ন মহলে দাবি পেশ করেছেন।

পাশের রাজ্য বিহার যখন দিতে পারছে তখন তাঁরা পাবেন না কেন? তাঁদেরও মাসে ৩ দিন করে অতিরিক্ত ছুটি চাই। কিন্তু কেন এমন আজব দাবি?

শিক্ষিকাদের দাবি, মাসে ৩ দিন অন্তত তাঁদের ঋতুস্রাবের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। এই সময় রক্তপাত যেমন হয়, তেমনই যন্ত্রণা ভোগ করতে হয় তাঁদের।

ঋতুস্রাবের দিনগুলোয় তাই তাঁরা ক্লাস নিতে পারবেননা। তাঁদের ছুটি চাই। মাসে ৩ দিন করে তাঁদের অতিরিক্ত ছুটি দেওয়া হোক।

এই দাবিতে সোচ্চার হয়েছেন শিক্ষিকারা। মাসিক ঋতুস্রাব ছুটি হিসাবে গণ্য করা হোক এই ছুটিকে বলে দাবি করেছেন উত্তরপ্রদেশের শিক্ষিকারা।

ইতিমধ্যেই উত্তরপ্রদেশের শিক্ষিকাদের সংগঠন রাজ্যের মহিলা কমিশনের সদস্য অনামিকা চৌধুরির কাছে তাদের দাবি পেশ করেছে।

অনামিকা চৌধুরি সংগঠনকে আশ্বাস দিয়েছেন যে বিষয়টি তিনি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের নজরে আনবেন। শিক্ষিকাদের সংগঠন এবার এই দাবি নিয়ে রাজ্যের উপ-মুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্যরও দ্বারস্থ হতে চলেছে।

শিক্ষিকারা জানিয়েছেন, ঋতুস্রাবের দিনগুলোয় রক্তপাত ও যন্ত্রণা তাঁদের মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্যে প্রভাব ফেলে। শিক্ষিকাদের সংগঠন তাদের নিজেদের পাশাপাশি রাজ্যের যে মহিলা সরকারি কর্মী রয়েছেন তাঁদের ক্ষেত্রেও এই ছুটি ধার্য করার আবেদন করেছে।

প্রসঙ্গত ইতিমধ্যেই জোমাটো সহ বেশ কিছু বেসরকারি সংস্থা তাদের মহিলা কর্মীদের জন্য ঋতুস্রাবের ছুটি ঘোষণা করেছে। জোমাটো যেমন জানিয়েছে তারা বছরে ১০ দিন ঋতুস্রাব ছুটি দেবে তাদের মহিলা কর্মীদের। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More
Back to top button