Health

তৃতীয় ঢেউয়ের আতঙ্কের মাঝেই থাবা বসাল করোনার চতুর্থ ঢেউ

ভারত যখন তৃতীয় ঢেউয়ের আগমনের আতঙ্কে প্রমাদ গুনছে তখনই আছড়ে পড়ল চতুর্থ ঢেউ। যেখানে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বিদ্যুতের গতিতে।

তৃতীয় ঢেউ নিয়ে গোটা বিশ্ব যখন সতর্ক, যখন ইতিমধ্যেই বলা হচ্ছে তৃতীয় ঢেউ তার প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে, তখন ফ্রান্সে আছড়ে পড়ল চতুর্থ ঢেউ। আর চতুর্থ ঢেউ সেখানে থাবা বসানোর পরই যা পরিস্থিতি হয়েছে তাতে প্রশাসনের মাথায় হাত পড়েছে।

বিদ্যুতের গতিতে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। বিশেষজ্ঞেরা জানাচ্ছেন আগের সব করোনার ঢেউকে ম্লান করে দিয়েছে চতুর্থ ঢেউয়ের সংক্রমণ ছড়ানোর গতি। এতটাই দ্রুত ছড়াচ্ছে সংক্রমণ।

ফ্রান্সে এতটাই আচমকা চতুর্থ ঢেউ হানা দিয়েছে যে ফ্রান্সের সরকারই হতবাক। মাত্র ১ সপ্তাহের মধ্যে সেখানে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে ১২৫ শতাংশ।

সরকারের তরফে জানানো হয়েছে এতটাই হঠাৎ করে চতুর্থ ঢেউ আছে পড়ল এবং এত দ্রুত তা সংক্রমণ ছড়াচ্ছে যে এটা তাদের কল্পনার মধ্যেই ছিলনা।

চতুর্থ ঢেউয়ে এই অতিদ্রুত সংক্রমণের কারণ ডেল্টা প্রকার। ফ্রান্সের ৮০ শতাংশ সংক্রমিতই ডেল্টা প্রকার দ্বারা সংক্রমিত।

কীভাবে আচমকা আছড়ে পড়ল চতুর্থ ঢেউ? সরকার জানাচ্ছে এটার মূল কারণ প্রচুর পর্যটকের উপস্থিতি। বিশেষত সমুদ্র তীরবর্তী এলাকায় সংক্রমণের গতি বাড়ছে। কারণ এখানে গ্রীষ্ম কালে প্রচুর পর্যটক ভিড় জমান।

ফ্রান্স সরকার মনে করছে এখান থেকেই ছড়িয়েছে সংক্রমণ। ফ্রান্স সরকার গত সোমবারই দ্রুত একটি হেলথ বিল এনেছে। যেখানে হেলথ পাশ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে কোনও সাংস্কৃতিক বা দ্রষ্টব্য স্থানে প্রবেশ করতে গেলে।

হেলথ কার্ডে হয় সংশ্লিষ্ট পুরুষ বা মহিলাকে হয় সম্পূর্ণ টিকা গ্রহণ করার শংসাপত্র দেখাতে হবে অথবা তাঁর নেগেটিভ পিসিআর রিপোর্ট থাকতে হবে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More
Back to top button