National

বস্তিতে আগুন, পুড়ে ছাই ২৫০টি ঘর

একটি বস্তিতে আগুন লেগে পুড়ে ছাই হয়ে গেল ২৫০টি ঘর। দমকল ৪ ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

নয়াদিল্লি : সোমবার রাত সওয়া ১২টা। পুলিশের কাছে ফোন আসে যে দিল্লির তুঘলকাবাদ এলাকায় একটি বস্তিতে আগুন লেগে গেছে। ওই বস্তিতে ৫০০টি ঘর রয়েছে। ঘিঞ্জি বস্তি। সবই অস্থায়ী কুঁড়ে ঘর। তাও আবার সমতল থেকে একটু উঁচু এলাকায়। ফলে দমকল দ্রুত পৌঁছনোর চেষ্টা করলেও উঁচুতে উঠতে একটু সময় লেগে যায়। দমকল খবর পাওয়ার পর এক এক করে ২৮টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে হাজির হয়। রাত যত বাড়ে আগুনও ততই বাড়ে।

প্রায় ৪ ঘণ্টা ধরে দমকলকর্মীরা চেষ্টা করার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। পুলিশ জানিয়েছে যে বিধ্বংসী আগুন লেগেছিল তাতে মনে হয়েছিল পুরো বস্তিটাই পুড়ে গেছে। কিন্তু সকালের আলো ফোটার পর যখন কুলিং প্রক্রিয়া চালাচ্ছে দমকল তখন দেখা যায় ২৫০টি ঘর তখনও অক্ষত। তবে বাকি ২৫০টি ঘর পুড়ে গেছে। ঠান্ডা করার প্রক্রিয়া শেষ করতে দমকলের সকাল ৮টা বেজে যায়।

এত বড় আগুন লাগলেও কোনও হতাহতের খবর নেই। পুলিশ জানাচ্ছে, আগুন দেখে ঘর থেকে যে কজন ছিলেন সকলে বেরিয়ে আসেন। ফলে কোনও হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ওই বস্তিতে খুব কম মানুষই ছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। কেন আগুন লাগল তা এখনও পরিস্কার নয়। তা জানতে তদন্ত শুরু হয়েছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button