National

২ গ্রামের মধ্যে ধুন্ধুমার, মৃত বিজেপি নেতা

২ পাশাপাশি গ্রামের মধ্যে লড়াইকে কেন্দ্র করে অশান্ত পরিস্থিতিতে প্রাণ গেল ১ বিজেপি নেতার।

ঘটনার সূত্রপাত গত রবিবার। এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে কৃষিকাজে ব্যবহৃত যন্ত্র কিনতে গিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। সঙ্গে তাঁর ছেলেরাও ছিলেন। বিক্রেতা অনিলের সঙ্গে তাঁদের জিনিস কেনাকে কেন্দ্র করে ঝগড়া শুরু হয়। তারপর তা হাতাহাতিতে গড়ায়। ২ জন আহতও হন। তবে তখনকার মত বিষয়টি থেমে যায়। কল্যাণ সিং তাঁর ছেলেদের নিয়ে নিজের গ্রামে ফিরে যান। এদিকে বিক্রেতা অনিল বিষয়টি নিয়ে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন। কল্যাণ সিং ও তাঁর ছেলেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে অনিল কল্যাণ সিংয়ের গ্রামেই হাজির হন।

অনিল বামনপুরা গ্রামের বাসিন্দা। কিন্তু তিনি কয়েকজনকে সঙ্গে করে কল্যাণ সিংয়ের গ্রাম বুধুয়া নাগলা গ্রামে হাজির হয়ে কল্যাণ সিংয়ের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। শুরু হয় মারামারি। বুধুয়া নাগলা গ্রামের বাসিন্দারা অনিলকে পাকড়াও করে পুলিশ স্টেশনে নিয়ে যান। এই খবর পৌঁছয় বামনপুরা গ্রামে। তারপরই ২ গ্রামের বাসিন্দারা বেরিয়ে আসেন। শুরু হয় ২ গ্রামের মধ্যে প্রবল সংঘর্ষ।

বামনপুরা ও বুধুয়া নাগলা গ্রামের লড়াই বহুদিনের। ফের গত মঙ্গলবার তা চরম আকার নেওয়ায় সেখানে হাজির হন স্থানীয় বিজেপি নেতা কৃষ্ণপাল। ২ তরফকে শান্ত করার চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু পড়ে যান ২ পক্ষের ধুন্ধুমারের মাঝে। আঘাত লাগে তাঁর। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও মারা যান কৃষ্ণপাল।

পুলিশ জানিয়েছে কৃষ্ণপালের পরিবারের তরফে কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। তবে যারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বদায়ুঁ জেলায়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button