National

লকডাউনের মধ্যেও কারা বিদেশ যেতে পারবেন, জানাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

লকডাউনে দেশে যাবতীয় বিমান পরিষেবা বন্ধ। তাও কিছু মানুষ ফিরতে পারবেন গন্তব্য দেশে। কারা পারবেন স্পষ্ট করল করল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

দেশজুড়ে লকডাউন শুরুর পর থেকে দেশের মধ্যে ও বিদেশে যাওয়ার বিমান পরিষেবা স্তব্ধ হয়ে আছে। ভারত থেকে অন্য দেশে যেতে পারছেন না অনেকে। আটকে পড়ে আছেন এ দেশে। এবার এভাবে ভারতে আটকে পড়া মানুষজনকে দেশে ফেরানোর বন্দোবস্তের পথে হাঁটল ভারত সরকার। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক স্পষ্ট করে দিয়েছে কারা লকডাউনের মধ্যেও বিদেশে যেতে পারবেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছে, বিদেশি, গ্রিন কার্ড আছে এমন ব্যক্তি বা ওভারসিজ সিটিজেনশিপ অফ ইন্ডিয়া কার্ড আছে এমন মানুষজন এই সুযোগ পাবেন। এছাড়াও যে দেশে কেউ যেতে চান সে দেশে থাকার জন্য ১ বছরের ভিসা আছে এমন মানুষজনও এই সুযোগ পাবেন। চিকিৎসাজনিত জরুরি পরিষেবা পেতে বা পরিজনের মৃত্যুর কারণে ৬ মাসের ভিসা আছে এমন ভারতীয়কে ভিন দেশে যেতে ছাড় দিচ্ছে সরকার। তবে এজন্য তাঁদের বেশ কিছু নিয়ম মানতে হবে।

যদি এমন যোগ্যতাসম্পন্ন মানুষ চান বিদেশে যেতে তাহলে তাঁকে বিস্তারিত জানিয়ে নিজের সব তথ্য জানিয়ে অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রকের কাছে বা মন্ত্রক স্বীকৃত এজেন্সির কাছে আবেদন করতে হবে। কবে যেতে চান, কোথায় যেতে চান, তাও জানিয়ে আবেদন করতে হবে। স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রোটোকল মেনে চলতে হবে। কারণ যে দেশে ওই ব্যক্তি যেতে চান সেই দেশ বিষয়টি খতিয়ে দেখে তবেই ঢুকতে দেবে। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি যে দেশে যেতে চান সেই দেশ তাদের দেশে প্রবেশের যে যে নিয়মবিধি লাগু করেছে তা মানলে তবেই তিনি যেতে পারবেন।

অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক আগামী ৭ মে থেকে বিদেশে আটকে পড়া ভারতীয়দের ফেরানোর বন্দোবস্ত করছে। সেই বিমান ভারত থেকে যাত্রা করবে ওই সব দেশে। সেই দেশে যদি ফেরার কেউ থাকেন তাহলে এইসব অনির্ধারিত বিমানে ভারত থেকে ওই দেশে ফেরানো হবে ওই দেশে যেতে আবেদন করা মানুষজনকে। বিমানে ওঠার সময় মন্ত্রক থার্মাল স্ক্রিনিং সহ স্বাস্থ্যপরীক্ষা করে তবেই বিমানে উঠতে দেবে। মন্ত্রক জানিয়েছে, কেবলমাত্র যাঁদের করোনা উপসর্গ নেই তাঁদের বিমানে উঠতে দেওয়া হবে। এটা কঠোরভাবেই পালন করা হবে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button