Saturday , September 21 2019
Supermoon

২০২৪ সালের মধ্যে চাঁদে পা দিতে চলেছেন ১ মহিলা, দাবি করল নাসা

২০২৪ সাল। অর্থাৎ আর ৫ বছর। এরমধ্যেই চাঁদের মাটিতে পা দিতে চলেছেন ১ মহিলা। তিনিই হবেন চাঁদের মাটিতে পা রাখা প্রথম মহিলা। ইতিহাস গড়বেন তিনি। তাঁকে যে যানটি চাঁদে নিয়ে যাবে তার নাম হবে আরতেমিস। প্রাচীন গ্রীসের চাঁদের দেবী আরতেমিস। তাঁর নামেই হবে এই চন্দ্রযান। গ্রীক দেবতা অ্যাপোলোর যমজ বোন আরতেমিস। প্রথম কোনও মানুষকে চাঁদে নিয়ে গিয়েছিল চন্দ্রযান অ্যাপোলো। এবার অ্যাপোলোর যমজ বোনের নামে চন্দ্রযান কোনও মহিলাকে প্রথম চাঁদে নিয়ে যাবে। এমনই জানাল নাসা।

নাসার দাবি, এখনও পর্যন্ত সাকুল্যে ১২ জন চাঁদের মাটিতে পা রেখেছেন। তাঁরা সকলেই পুরুষ, সকলেই মার্কিন নাগরিক। ১৯৭২ সালে শেষবার চাঁদের মাটিতে পা রাখে মানুষ। ফের একবার চাঁদে পা রাখবে মানুষ। তবে এবার কোনও পুরুষ নন। একজন মহিলা চাঁদের মাটিতে পা রাখবেন। সেই লক্ষ্য স্থির করেই তাঁরা এগোচ্ছেন বলে জানিয়েছেন নাসা-র এক প্রশাসক জিম ব্রিডেনস্টাইন।

জিম জানিয়েছেন, গত সোমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নাসার মহাকাশ গবেষণায় আরও গতি আনতে ১.৬ বিলিয়ন ডলার ধার্য করেছেন। আর এই বিশাল অঙ্কের অর্থ সাহায্য পাওয়ার পর অনেকটাই নড়ে চড়ে বসেছে নাসা। তারপরই তারা ঘোষণা করল চাঁদে কোনও মহিলাকে পাঠানোর কথা। তবে নাসা এটাও পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছে ওই মহিলা একজন মার্কিন নাগরিকই হবেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *