National

রাতারাতি বাতিল ৫০০ ও ১০০০ টাকার পুরনো নোট

রাতারাতি বাতিল হয়ে গেল ৫০০ ও ১০০০ টাকার চালু নোট। এদিন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একথা ঘোষণা করেন। তবে ১১ নভেম্বর পর্যন্ত পুরনো নোট ব্যবহার করা যাবে। কিন্তু তার পর আর নয়। মোদীর দাবি, দেশের কালো টাকা ধরতেই এই পথ নিল কেন্দ্র। আগামী ৫০ দিনের মধ্যে ব্যাঙ্কে আধার কার্ড, প্যান কার্ড বা ভোটার কার্ডের মত পরিচয় পত্র নিয়ে হাজির হয়ে টাকা বদল করা যাবে। তবে বুধবার সমস্ত ব্যাঙ্ক ও বৃহস্পতিবার অবধি সব এটিএম বন্ধ থাকবে। এরপর ব্যাঙ্ক খুললে টাকা বদল করা বা তোলা যাবে। তবে এটিএম থেকে ২০০০ টাকার বেশি একদিনে তোলা যাবেনা। এদিকে ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিলের কথা এদিন আম জনতার মধ্যে আতঙ্কের জন্ম দিয়েছে। অনেকেই বুঝতে পারছেন না বাড়িতে যে নোটগুলি রয়েছে তা নিয়ে কী করবেন। ব্যাঙ্ক খুললে ব্যাঙ্কগুলিতে যে অমানুষিক ভিড় শুরু হবে তা নিয়েও চিন্তিত সবাই। ইতিমধ্যেই এটিএম বন্ধ থাকার খবরে টাকা তোলার হিড়িকে এটিএম গুলির সামনে লম্বা লাইন তৈরি হয়েছে।

মোদীর এই সিদ্ধান্তে কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দরিদ্রদের কথা না ভেবেই এমন আচরণ ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। কংগ্রেসও কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছে। হঠাৎ এমন সিদ্ধান্তকে মোদী সরকারের হঠকারিতা বলেও কটাক্ষ করেছে তারা। তবে পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখে তারপর এ বিষয়ে কংগ্রেস তাদের প্রতিক্রিয়া জানাবে বলে দলীয় তরফে জানানো হয়েছে। তবে এত প্রশ্নের মধ্যে আমজনতার কাছে স্বস্তির খবর যে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে বাজারে আসতে চলেছে নতুন ৫০০ ও ২০০০ টাকার নোট।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button