National

প্রধানমন্ত্রীর গলায় স্কুবা ডাইভারদের অবদান থেকে অযোধ্যা রায়

মাত্র ১৩ দিনে স্কুবা ডাইভাররা সমুদ্রের তলদেশ থেকে কুড়িয়ে এনেছেন ৪ হাজার কেজি প্লাস্টিক বর্জ্য। ভারতীয় উপকূল জুড়ে যেভাবে ক্রমশ সমুদ্রের তলায় প্লাস্টিক জমছিল তা চিন্তার কারণ হয়ে উঠেছিল। ফলে সমুদ্র তলদেশ সাফ করার দরকার রয়েছে। সেই কাজ তৎপরতার সঙ্গে শুরু করেছেন স্কুবা ডাইভাররা। ২৪ তারিখ ছিল নভেম্বর মাসের শেষ রবিবার। আর মাসের শেষ রবিবার মানেই প্রধানমন্ত্রীর রেডিও অনুষ্ঠান মন কি বাত। এদিন মন কি বাত-এ প্রধানমন্ত্রী স্বচ্ছতা অভিযানে স্কুবা ডাইভারদের অবদানের কথা তুলে ধরেন।

রবিবার মন কি বাত-এ প্রধানমন্ত্রী প্লাস্টিক মুক্ত ভারত গড়ার ডাক দেন। স্কুবা ডাইভারদের থেকে প্রেরণা নিয়ে গোটা দেশকে প্লাস্টিক বর্জ্য মুক্ত করার আহ্বান জানান তিনি। প্লাস্টিক মুক্ত ভারত গোটা বিশ্বের কাছে একটা উদাহরণ হতে পারে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। সেইসঙ্গে ফিট ইন্ডিয়া-র কথাও এদিন শোনা গেছে প্রধানমন্ত্রীর গলায়। বিশেষত ভারতের নতুন প্রজন্মের ফিট থাকার প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরেন তিনি। সিবিএসই-র সব স্কুলে আগামী ডিসেম্বরে ফিট ইন্ডিয়া উইক পালনের অনুরোধ করেন প্রধানমন্ত্রী।

মন কি বাত-এ এদিন প্রধানমন্ত্রী অযোধ্যা মামলার রায় নিয়েও কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ২০১০ সালে যখন অযোধ্যা মামলা নিয়ে এলাহাবাদ হাইকোর্ট রায় দিয়েছিল তখনও ভারতবাসী শান্তিতে সেই রায়কে মেনে নিয়েছিলেন। এবার যখন অযোধ্যা মামলা নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট রায় দিল তখনও গোটা ভারত তা শান্তির সঙ্গে গ্রহণ করেছে। এটাই বোঝায় ভারতীয়দের কাছে এখন দেশের স্বার্থের চেয়ে বড় আর কিছু নয়। অযোধ্যা মামলার রায়কে একটি মাইলস্টোন বলে ব্যাখ্যা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন এর ফলে একটি বহুকাল ধরে চলা বিচারবিভাগীয় অধ্যায়ের সমাপ্তি হল।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button