State

ত্রাণ নিয়ে কোনও অভিযোগ শুনতে চান না মুখ্যমন্ত্রী

গত শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আকাশপথে বন্যাবিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনের পর এদিন কাকদ্বীপে প্রশাসনিক বৈঠকে একগুচ্ছ নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

কাকদ্বীপ : করোনায় সরকারি ঘোষণা মত রেশন না পাওয়া নিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অভিযোগের সুনামিতে যে তিনি বিরক্ত তা আম্ফানের ত্রাণ বিলি নিয়ে বুঝিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ত্রাণ বিলি নিয়ে যেন কোনও অভিযোগ সামনে না আসে। ত্রাণ বিলিতে নয়ছয় যেন না হয় তা শনিবার কাকদ্বীপে প্রশাসনিক বৈঠকে পরিস্কার করে দিলেন তিনি। জানালেন পানীয় জল নিয়েও কোনও অভিযোগ তিনি শুনতে রাজি নন। যেখানে পানীয় জল দুর্গত মানুষজন পাচ্ছেন না সেখানে পাউচ বিলি করে যেন পানীয় জলের প্রয়োজন মেটানো হয়।

শনিবার কাকদ্বীপে মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসনিক বৈঠক করেন। আম্ফানে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্ষয়ক্ষতির কথা মাথায় রেখে সেখানে দুর্গত মানুষজনের পাশে দাঁড়াতে ও অবস্থা স্বাভাবিক করতে প্রয়োজনীয় বন্দোবস্তের জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। জেলার ৫৬ কিলোমিটার নদীবাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত। বর্ষার আগেই তা সারানোর নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। পুরো অবস্থা স্বাভাবিক করে তোলার জন্য ১০০ দিনের কাজে স্থানীয়দের কাজে লাগানোর কথা জানিয়েছেন তিনি। রেশন যেন সকলে পান সে দিকেও সকলকে নজর রাখতে বলেন।

মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাজ্যে এখনও আম্ফানে ৬ কোটি মানুষ বিধ্বস্ত। তাঁদের মধ্যে ৭৬ লক্ষ মানুষ দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসিন্দা। তাঁদের যেন ত্রাণ ও প্রয়োজনীয় সাহায্য পেতে অসুবিধা না হয় সেজন্য প্রশাসনিক আধিকারিকদের নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। বর্ষা আর ১ মাস বাকি। তার আগেই যেন সব রাস্তা ঠিক করে দেওয়া হয় সে নির্দেশও দেন মুখ্যমন্ত্রী। এমনকি এই দুর্যোগ পরবর্তী বিধ্বস্ত সময়ে চুরি-ডাকাতি বা মহিলাদের সঙ্গে কোনও অসদাচরণ, নারী পাচারের মত সমস্যা যাতে মাথা চাড়া দিতে না পারে সেদিকে পুলিশকে কড়া নজর রাখতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button