Kolkata

সোমবার থেকে গ্রিন জোনে কিছু ছাড়ের ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

আগামী সোমবার থেকে রাজ্যের গ্রিন জোনে বেশ কিছু ছাড়ের কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এটাও জানিয়ে দিয়েছেন নিয়ম লঙ্ঘন হতে থাকলে তিনি সব ছাড়ের সুযোগ তুলে নেবেন।

আগামী রবিবার দেশজুড়ে দ্বিতীয় দফার লকডাউনের শেষ দিন। তারপরেও লকডাউন চলবে কিনা তা এখনও স্পষ্ট করেনি কেন্দ্র। তবে তার আগে পশ্চিমবঙ্গের গ্রিন জোনগুলির জন্য সোমবার অর্থাৎ ৪ মে থেকে বেশ কিছু ছাড়ের কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী এদিন জানান, গ্রিন জোনে থাকা পাড়ার দোকান, বইয়ের দোকান, মোবাইল রিচার্জের দোকান, রংয়ের দোকান, ইলেকট্রনিক জিনিস বিক্রির দোকান, হার্ডওয়্যারের দোকান, লন্ড্রি খুলতে পারবেন ব্যবসায়ীরা। তবে সোশ্যাল ডিসটান্সিংয়ের সব বিধি মেনেই দোকান চালু রাখতে হবে। ভিড় করা চলবে না।

মুখ্যমন্ত্রী আরও জানান, গ্রিন জোনে বেসরকারি বাস চালু করা যাবে। তবে তা জেলা প্রশাসনের অনুমতি সাপেক্ষ। বাস চালু হলে তাতে ২০ জনের বেশি যাত্রী নেওয়া যাবে না। তাছাড়া নিজের জেলার বাইরে কেউ যেতে পারবেন না। সেইসঙ্গে চায়ের দোকান খোলা যাবে বলে জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, তার মানে এই নয় যে চায়ের দোকানে ভিড় করে আড্ডা দেওয়া যাবে। বরং হোম ডেলিভারি হতে পারে।

গ্রিন জোনে পড়লেও ছাড় থাকছে না সেলুন, বিউটি পার্লার, স্পা, মদের দোকান, শপিং মল, মার্কেট কমপ্লেক্স, হকার্স কর্নার-এ। ফলে এগুলি যেমন বন্ধ আছে তেমনই থাকবে। তবে এটা পরিস্কার যে রাজ্য প্রশাসন একটু একটু করে খুলে দেখতে চাইছে পরিস্থিতি কোথায় দাঁড়ায়। সেজন্যই হয়তো মুখ্যমন্ত্রী এটাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন যে নিয়ম যেখানে মানা হবে না সেখানে এই ছাড়ের সুযোগ তুলে নেবে সরকার। রাজ্যে এখন জেলা ভিত্তিক ৪টি রেড জোন, ১১টি অরেঞ্জ জোন ও ৮টি গ্রিন জোন রয়েছে।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button