State

বিজেপি ছেড়ে মমতার পাশে কেপিপি

দক্ষিণবঙ্গে যখন সূর্য আগুন ঢালছে, তখন উত্তরবঙ্গের পারদ চড়ছে রাজনীতির উত্তাপে। মঙ্গলবার উত্তরবঙ্গের দুই প্রান্তে সভা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। হেভিওয়েট সভা ঘিরে উত্তরবঙ্গে এদিন মুখে মুখে রাজনীতি নিয়ে আলোচনা। মুখ্যমন্ত্রীর জন্য দিনটা অবশ্যই সাফল্যের। কারণ কেপিপি-একা পাশে পাওয়া। কামতাপুর পিপলস পার্টি এতদিন বিজেপির সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছিল। এদিন তারা গেরুয়া শিবির ছেড়ে হাত মেলাল তৃণমূলের সঙ্গে। কেপিপি সভাপতি অতুল রায়ের ডাকে সাড়া দিয়ে এদিন কোচবিহারের রাসমেলা মাঠে একটি জনসভায় যোগ দেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজবংশী ভাষাকে সরকারি ভাষার স্বীকৃতি ও কামতাপুরের উন্নয়নে মুখ্যমন্ত্রীর পদক্ষেপ কেপিপিকে মমতার অনেক কাছে এনে দিয়েছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। এদিন মুখ্যমন্ত্রী রাজবংশীদের আশ্বাস দিয়ে বলেন, তিনি আধখানা রুটি পেলে তাঁরাও তার ভাগ পাবেন। তিস্তার জল প্রসঙ্গে চাপানউতোর অব্যাহত। এই অবস্থায় উত্তরবঙ্গে গিয়ে তিস্তা নিয়ে রাজ্য সরকারের অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সাফ জানালেন, তিস্তার যে অংশে জল আছে সেখান থেকে বাংলাদেশকে জল দিতে তাঁর আপত্তি নেই। কিন্তু যেখানে জল নেই সেখান থেকে জল দেওয়া সম্ভব নয়। এটাও পরিস্কার করে দেন যে বাংলাদেশকে তিনি ভালবাসেন, তবে পশ্চিমবঙ্গের আগে কখনই নয়। এদিন কোচবিহারের চকচকায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে সেখানে শিল্প উন্নয়নে জোর দেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিকে এদিন বিজেপিকে আক্রমণ করে কাউকে বিজেপিতে না যাওয়ার ডাক দেন মমতা। গরুর আধার কার্ড নিয়ে বিজেপিকে কটাক্ষও করেন তিনি।

 


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button