Tuesday , October 23 2018
Kolkata News

দক্ষিণে ডায়রিয়া আতঙ্ক, হাসপাতালে বাড়ছে রোগীর সংখ্যা

উপসর্গের শুরু গত শনিবার থেকে। রবিবার তা বেশ খারাপ চেহারা নেয়। শয়ে শয়ে রোগী হাসপাতালে হাজির হন। উপসর্গ সকলেরই এক। বমি, ঘনঘন মলত্যাগ, সঙ্গে প্রবল পেটের যন্ত্রণা। কলকাতা পুরসভার অন্তর্গত বাঘাযতীন, মুকুন্দপুর, গড়িয়া, বৈষ্ণবঘাটা, পাটুলি এলাকায় এই ডায়রিয়া আতঙ্ক পেয়ে বসেছে। এভাবে একই জায়গা জুড়ে একই রকম উপসর্গে শয়ে শয়ে মানুষ আক্রান্ত হওয়ায় আঙুল উঠেছে কলকাতা পুরসভা বণ্টিত জলের দিকেই। স্থানীয়দের দাবি, কলকাতা পুরসভার পানীয় জল থেকেই এই অবস্থা। যদিও কলকাতা পুরসভার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের দাবি, জল থেকে সংক্রমণের কোনও প্রমাণ মেলেনি। তাঁর প্রশ্ন, যদি জল থেকেই হত তাহলে একই পরিবারের সকলের এই অবস্থা হচ্ছে না কেন? জল তো একই পান করছেন সকলে।



গত রবিবার সকাল থেকেই বাঘাযতীন হাসপাতাল সহ আশপাশের স্বাস্থ্যকেন্দ্রে রোগীর ভিড় উপচে পড়ে। স্থানীয় চিকিৎসকদের কাছেও এই উপসর্গ নিয়ে ভিড় জমাচ্ছেন মানুষজন। আক্রান্তদের মধ্যে অনেক শিশু রয়েছে। অনেক রোগীকে ওষুধ ও ওআরএস পান সহ বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে চিকিৎসকেরা বাড়ি পাঠাচ্ছেন। তবে প্রায় ৬০ জনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাঁদের বাঘাযতীন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জোরকদমে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া শুরু করেছেন। কী থেকে এমন কাণ্ড হল পুরসভার ৮টি ওয়ার্ডে তা খতিয়ে দেখছে কলকাতা পুরসভা।



Advertisements

About News Desk

Check Also

Durga Puja

বৃষ্টিকে পরোয়া না করেই সন্ধে নামতে প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে মানুষের ঢল

সকাল থেকে দুপুর। চতুর্থীতে যে ভিড়টা শহরে থাকার কথা তা ছিলনা। কারণ অবশ্যই বৃষ্টি। বৃষ্টি হয়েছে সারা দুপুর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.