SciTech

করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও মহাকাশে ফের সাফল্য লিখল ভারত

করোনা পরিস্থিতি বর্তমান। ভারত সহ গোটা বিশ্বই করোনার জেরে নাজেহাল। তার মধ্যেও থেমে নেই ভারতের জয়যাত্রা। ফের একবার মহাকাশে সাফল্য লিখল ভারত।

শ্রীহরিকোটা (অন্ধ্রপ্রদেশ) : করোনার বিরুদ্ধে লড়াই চলছে জোরকদমে। তাকে পরাস্ত করার যাবতীয় পথ খুঁজে বার করার কাজ চলছে। এই পরিস্থিতিতেও কাজ কিন্তু থেমে নেই। থেমে নেই মহাকাশে ভারতের জয়যাত্রা।

মহাকাশবিজ্ঞানে বিশ্বের মধ্যে ভারত এখন এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। তার সেই উজ্জ্বলতা ধরেও রাখল ইসরো। ফের তারা মহাকাশে পর্যবেক্ষণ উপগ্রহ উৎক্ষেপণ করল। এই করোনা আবহে এই সাফল্য আবার এক নতুন ইতিহাস লিখল।

শনিবার বিকেল ৩টে ১২ মিনিটে মহাকাশের দিকে উড়ে যায় ইসরোর মহাকাশযান। নির্ধারিত সময়ের ১০ মিনিট দেরিতে উৎক্ষেপণ হয়। কারণও রয়েছে। আবহাওয়া খারাপ থাকায় ঝুঁকি না নিয়ে ১০ মিনিট দেরিতে উৎক্ষেপণের সিদ্ধান্ত নেন ইসরোর বিজ্ঞানীরা।

এদিন পিএসএলভি-সি৪৯ মহাকাশযানে চড়ে আকাশের দিকে উড়ে যায় সব মিলিয়ে ১০টি কৃত্রিম উপগ্রহ। যারমধ্যে ভারতের বিশ্ব পর্যবেক্ষণ উপগ্রহ ইওএস-০১ ছাড়াও রয়েছে অন্য দেশের ৯টি উপগ্রহ। ভারতের উপগ্রহটি কৃষিকাজ, বন সংরক্ষণ ও আপৎকালীন পরিস্থিতি মোকাবিলায় সাহায্য করবে।

মহাকাশে উড়ে যাওয়ার ২২ মিনিটের মধ্যেই রকেট থেকে পূর্ব নির্ধারিত কক্ষে প্রতিস্থাপিত হয় অন্য দেশের ৯টি উপগ্রহ। তারপর শেষে ভারতের উপগ্রহটি তার কক্ষে সফলভাবে প্রতিস্থাপিত হয়। এই সাফল্যের কথা এদিন জানান ইসরোর চেয়ারম্যান কে শিবন।

এদিকে ভারতের মহাকাশে এই সাফল্যের কিছু পরেই এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ট্যুইট করে ইসরোর বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন জানান।

মার্চে করোনার জন্য দেশে লকডাউন ঘোষণা হয়। তারপর এখন ধীরে ধীরে সবই প্রায় খুলে গেছে। মানুষ স্বাভাবিক জীবনে ফিরছেন, তবে করোনা বিধি মেনে। নিউ নর্মাল জীবনের সঙ্গে মানিয়ে নিচ্ছেন বিশ্ববাসী। ভারতবাসীও একই ভাবে সবকিছুর সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই চালাচ্ছেন।

এমন এক অতিমারি পরিস্থিতির মধ্যেও ইসরো থেমে থাকেনি। গত জানুয়ারি মাসে শেষবার মহাকাশে উপগ্রহ উৎক্ষেপণ করেছিল ভারত। তারপর করোনা ছড়ানোর পর এই প্রথম মহাকাশে উপগ্রহ পাঠাল তারা। আর তা চূড়ান্ত সাফল্য পেল এদিন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button