Sports

জলে গেল ধোনির দুরন্ত লড়াই, রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে হারল চেন্নাই

লিগ টেবিলের মাথায় থাকা চেন্নাইয়ের বিজয়রথ থামিয়ে দিল লিগ টেবিলের সবচেয়ে তলায় থাকা বেঙ্গালুরু রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স। তাও আবার রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে। খাদের কিনারা থেকে যে ম্যাচকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেন একা মহেন্দ্র সিং ধোনি। কিন্তু তাঁর সেই অধিনায়কোচিত পরাক্রমী ব্যাটিং সত্ত্বেও শেষ বলে রান নিতে গিয়ে আউট হলেন শার্দূল ঠাকুর। আর জয় অধরা থেকে গেল ধোনিদের।

গত ম্যাচেও আন্দ্রে রাসেল ও নীতীশ রাণার পরাক্রমে হারতে হারতে জিতেছিল বিরাট বাহিনী। এদিনও একইভাবে তারা হারাল চেন্নাইকে। চেন্নাই হারল ১ রানে। ধোনি অপরাজিত থেকে ৮৪ রান করলেও দলের জন্য অতি প্রয়োজনীয় ৫৩ রান করে ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হন বেঙ্গালুরুর ওপেনার তথা উইকেট কিপার পার্থিব প্যাটেল।

টস জিতে রবিবার বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে প্রথমে বেঙ্গালুরুকে ব্যাট করতে পাঠান ধোনি। ব্যাট করতে নেমে ৯ রান করে ফেরেন বিরাট কোহলি। ডেভিলিয়ার্স ও পার্থিব কিছুটা টানলেও ডেভিলিয়ার্স ২৫ রান করে আউট হন। এডি নাথ ২৪ রান করে ফেরেন। এরপর পার্থিব ফেরেন ৫৩ রান করে। স্টোইনিস ১৪ ও মইন আলি ২৬ রান করেন। ২০ ওভারের শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে বেঙ্গালুরু তোলে ১৬১ রান।

তার আগের খেলায় কলকাতাও ১৫৯ রান তোলে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে। তারপর হায়দরাবাদ ব্যাট করতে নেমে কলকাতার জঘন্য বোলিংকে কাজে লাগিয়ে ১৫ ওভারেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায়। বেঙ্গালুরু-চেন্নাই ম্যাচ কিন্তু তেমন হল না। প্রায় একই টোটাল তাড়া করতে নেমে বেঙ্গালুরুর দুরন্ত বোলিংয়ের সামনে পড়ে চেন্নাই।


ব্যাট করতে নেমে পরপর ৪টি উইকেট হারায় চেন্নাই। ওয়াটসন ৫, ডু প্লেসি ৫, রায়না ০, কেদার যাদব ৯ রান করে ফেরেন। ২৮ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে চেন্নাই। এখান থেকে ধোনি ও রাইডু ম্যাচ ঘোরানোর লড়াই শুরু করেন। ক্রিজ কামড়ে লড়তে থাকেন তাঁরা। রাইডুকে অবশ্য রান আউট করার একটা সুবর্ণ সুযোগ বিরাট পেয়েছিলেন। কিন্তু ব্যর্থ হন। রাইডু ২৯ রান করে ফিরলেও ধোনি তাঁর লড়াই একাই লড়ে চলেন।

জাদেজা ১১ রান করে অন্যদিক থেকে ফেরেন। নামেন ব্রাভো। তিনিও ৫ রান করে ফেরেন। কিন্তু জয়ের লক্ষ্যে দলকে টেনে নিয়ে যেতে থাকেন ধোনি। শেষে শার্দূল ঠাকুর নামেন। ধোনি তখনও লড়ছেন। ৭টি ছক্কা ও ৫টি চার হাঁকিয়ে তুলে নিয়েছেন ৮৪ রান। জয়ের জন্য আর তখন ২ রান দরকার। টাই করতে ১ রান। এই অবস্থায় শেষ বলে রান নিতে গিয়ে রান আউট হন শার্দূল। শেষ হয়ে যায় ধোনির এই মনে রাখার মত লড়াই। ১ রানে ম্যাচ হারেন ধোনিরা। কিন্তু ধোনির অপরাজিত থেকে এই ব্যাটিং বিক্রম কিন্তু অন্য দলগুলি‌কে আগামী দিনেও ভোগাবে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button