Sports

দিল্লিকে হারিয়ে মুম্বই ২ নম্বরে

দিল্লিকে সহজেই হারিয়ে দিল মুম্বই। বোলিংয়ে প্রথম দিকে কিছুটা দাপট দিল্লি দেখাতে পারলেও হার্দিকের তাণ্ডবে কার্যত বদলে যায় ছবিটা। তারপর রান তাড়া করতে নেমে মুম্বইয়ের বোলিং আক্রমণের সামনে মুখ থুবড়ে পড়ে দিল্লির ব্যাটিং লাইনআপ। ৪০ রানে ম্যাচ জেতে মুম্বই। ম্যাচের সেরা হন হার্দিক পাণ্ডিয়া। এদিন ডাগআউটে ছিল শচীন-সৌরভ দ্বৈরথ। আর তাতে শেষ হাসি হাসলেন শচীন তেন্ডুলকর।

বৃহস্পতিবার দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলার মাঠে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। রোহিত-ডি কক জুটি শুরুটা ভালই করে। রোহিত ৩০ রান করে ফেরেন। নামেন বেন কাটিং। কিন্তু মাত্র ২ রানেই ফিরতে হয় তাঁকে। তবে সূর্য কুমার যাদব ও ডি কক ভাল ব্যাট করেন। ডি কক ৩৫ রান করে ফেরেন। সূর্য করেন ২৬ রান। এরপর ক্রুণাল পাণ্ডিয়া ও হার্দিক পাণ্ডিয়া ২ ভাই মিলে মুম্বইকে সম্মানজনক স্কোরে দাঁড় করিয়ে দেন। ক্রুণাল করেন ৩৭ রান। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন। হার্দিক ৩২ রান করে আউট হন খেলা শেষ হতে ৩ বল বাকি থাকতে। মুম্বই ২‌০ ওভারে করে ১৬৮ রান।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

খুব বড় রান নয়। তাও আবার নিজেদের মাঠ। ফলে পৃথ্বী শ ও শিখর ধাওয়ান খুব ভাল শুরু করেন। ধাওয়ান এদিন মারমুখী মেজাজে ছিলেন। ৩৫ রান করে ফেরেন তিনি। ২০ রান করে ফেরেন পৃথ্বী শ। এর পর থেকেই দিল্লির ব্যাটিং লাইনআপে ধস শুরু হয়। মুনরো ৩ রানে, অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার ৩ রানে, ঋষভ পন্থ ৭ রানে আউট হন। ক্রিস মরিস ফেরেন ১১ রান করে। অক্ষর প্যাটেল ২৬ রান করে একটু লড়াই দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু বাকিরা ব্যর্থ হন। কিমো পল ০ রানে, রাবাডা ৯ রান করে ফেরেন। ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে দিল্লি ক্যাপিটালস তোলে ১২৮ রান। হারে ৪০ রানে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button