Friday , April 26 2019
Chris Gayle
ব্যর্থ গেল গেইলের মারকাটারি ইনিংস, ছবি - আইএএনএস

অবশেষে হাসি ফুটল বিরাটের মুখে

পঞ্জাবকে ঘরের মাঠে হারিয়ে টানা ৬ ম্যাচ হারের পর জয়ে ফিরল বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। ৮ উইকেটে ম্যাচ জেতে তারা। এদিনও জয়ের নায়ক বিরাট কোহলি ও এবি ডেভিলিয়ার্স। বিরাট রান বেশি করলেও ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ হন ডেভিলিয়ার্স। ক্রিস গেইল এদিন ৯৯ রান করলেও ম্যাচ অধরা রইল পঞ্জাবের। বিরাটরা এদিন মাপা খেলে ম্যাচ বার করে নেন। এদিন ফের প্রমাণ হল বিরাট, ডেভিলিয়ার্স জুটি কী ভয়ংকর হতে পারে।

টস জিতে শনিবার রাতে মোহালির মাঠে প্রথমে পঞ্জাবকে ব্যাট করতে পাঠান বিরাট। এদিন পঞ্জাবের ইনিংসকে কার্যত একাই টেনে নিয়ে যান ক্রিস গেইল। যথারীতি তাঁর চেনা ছন্দে। কিন্তু অপর দিকে রাহুল ১৮ রানে, মায়াঙ্ক আগরওয়াল ১৫ রানে, সরফরাজ খান ১৫ রানে আউট হন। একা ক্রিস গেইল ৯৯ রান করে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন। মনদীপ সিং শেষে ১৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। পঞ্জাব তোলে ১৭৩ রান।

খুব বড় রানের ইনিংস না হলেও চ্যালেঞ্জিং স্কোর। আর তা তাড়া করতে নেমে চালিয়েই খেলতে শুরু করেন বিরাট কোহলি ও পার্থিব প্যাটেল। পার্থিব ১৯ রানে ফেরার পর বিরাটের সঙ্গে জুটি বাঁধেন ডেভিলিয়ার্স। পঞ্জাবের খারাপ ফিল্ডিং আর অন্যদিকে বিরাট-ডেভিলিয়ার্সের বিধ্বংসী জুটি‌ রানকে দ্রুত কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যের কাছে নিয়ে যেতে থাকে। বিরাট ৬৭ রানে যখন ফেরেন তখন ম্যাচ বেঙ্গালুরুর জেতার অবস্থায় পৌঁছেছে। এখান থেকে স্টোইনিস ও ডেভিলিয়ার্স খেলা টেনে নিয়ে যান।

স্টোইনিসের ক্যাচ ফেলে পঞ্জাব। যা আরও সুবিধা করে দেয় বেঙ্গালুরুকে। অবশেষে ডেভিলিয়ার্স ও স্টোইনিস ৪ বল বাকি থাকতেই জেতার জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেন। শেষ পর্যন্ত থেকে ম্যাচ জেতানোর জন্য ডেভিলিয়ার্স ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ হন। আর এই জয়ের ফলে এবারের আইপিএলে খাতা খোলে বেঙ্গালুরু।

Advertisements

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *