Sports

এবার রাসেলের রূপ ধারণ করলেন পোলার্ড

এখনও পর্যন্ত আইপিএলে আন্দ্রে রাসেলই দেখিয়ে এসেছেন মাসল পাওয়ার কাকে বলে! কলকাতাকে ২ বার খাদের কিনারা থেকে জয়ে ফিরিয়েছেন একার জোরে। সেই রাসেলকে নিয়ে যখন আইপিএলে চর্চা তুঙ্গে তখনই রাসেলের ঢঙেই দলকে জিতে ফিরিয়ে রাসেলের জনপ্রিয়তায় থাবা বসালেন তাঁরই দেশের কায়রন পোলার্ড। ৩১ বল খেলে ৮৩ রান করে মুম্বইকে কার্যত হারা ম্যাচ জিতিয়ে ফেরেন তিনি।

পঞ্জাবের বিরুদ্ধে বুধবার রোহিত শর্মা না থাকায় মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়কত্বের দায়িত্ব ছিল পোলার্ডের ওপর। আর সেই দায়িত্ব এদিন একজন অধিনায়কের মতই পালন করলেন তিনি। টানটান খেলায় শেষ বলে ম্যাচ জেতে মুম্বই। পোলার্ড ৩১ বলে ৮৩ রান করতে ১০টি ছক্কা হাঁকান।

টস জিতে ওয়াংখেড়ের পিচে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় মুম্বই। ব্যাট করতে নেমে বিধ্বংসী চেহারা নেন পঞ্জাবের ২ ওপেনার ক্রিস গেইল ও কেএল রাহুল। এঁদের মারকাটারি ইনিংসে ভরসা করে তরতরিয়ে চড়তে থাকে পঞ্জাবের রানের মিটার। ক্রিস গেইল যখন ৩৬ বলে ৬৩ রান করে আউট হন তখন ১১৬ রানে পৌঁছে গেছে পঞ্জাব। কারণ ক্রিস গেইল এদিন একা নন, অন্যদিক থেকে রাহুলও মারতে থাকেন। রাহুলের ভয়ংকর রূপ আরও বেশি দেখা যায় শেষ ৪ ওভারে। ৬৪ বল খেলে ১০০ রান করে অপরাজিত থাকেন রাহুল। দল ২০ ওভারে করে ১৯৭ রান।

১৯৮ রান করলে জিতবে এই অবস্থায় ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই মুম্বইয়ের রান তোলার গতিতে লাগাম পরিয়ে দেন মহম্মদ সামি। তাঁর ওভারে রানই উঠছিলনা। বরং অঙ্কিত রাজপুত অনেক রান দিয়েছেন। ৬২ রানে যখন ৩ উইকেট পড়ে তখন মুম্বই প্রায় ৯ ওভার খেলে ফেলেছে। ফলে বাকি ১১ ওভারে অত রান তোলা শক্ত কাজ ছিল। তারওপর রান কিন্তু তেমন উঠছিলনা।


ছবিটা বদলে যায় পোলার্ড নামার পর। এমন এক বিধ্বংসী ইনিংস তিনি খেলেন যে পঞ্জাবের বোলাররা খেই হারিয়ে ফেলেন। একমাত্র পোলার্ড বাদ দিয়ে বুধবার কেউই কিন্তু মুম্বইয়ের হয়ে বড় রান করতে পারেননি। অবশেষে চাহর ও জোসেফ শেষ বলে জয় এনে দেন মুম্বইকে। ম্যাচের সেরা হন পোলার্ড।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button