Health

নতুন জীবনকে আলো দেখাতে ধুতি বা লুঙ্গি পরার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা

দেশের পুরুষদের উচিত ধুতি বা লুঙ্গি জাতীয় পোশাকে গুরুত্ব দেওয়া। এমনই পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা। কেন তাও স্পষ্ট করে জানিয়েছেন তাঁরা।

দেশে এখন শরীরের সঙ্গে লেপ্টে থাকা পোশাকের চল বেড়েছে। স্কিনি বা স্কিন টাইট পোশাক পুরুষদের এখন নয়া ট্রেন্ড। কিন্তু সমস্যা সেখানেই।

গরমের দেশে এ ধরনের পোশাক অন্য সমস্যার জন্ম দিচ্ছে। যে বয়স পুরুষদের বাবা হওয়ার সেই বয়সের পুরুষ যদি আঁটসাঁট পোশাক পরেন তাহলে তাঁর স্পার্ম কাউন্ট কমে যাচ্ছে। ফলে তাঁর সন্তান জন্ম দেওয়ার ক্ষমতা কমে যাচ্ছে।

স্পার্ম ডিএনএ ভেঙে যাচ্ছে। যা তাদের কোনও নারীকে গর্ভবতী করার ক্ষমতা কমিয়ে দিচ্ছে। ফলে পুরুষদের মধ্যে হুহু করে বাড়ছে বন্ধ্যত্ব। এমনই জানাচ্ছেন চিকিৎসকেরা।

এজন্য ভারতের মত আবহাওয়ায় পুরুষদের ঢিলেঢালা পোশাক পরার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা। ধুতি বা লুঙ্গি জাতীয় পোশাকই তাঁদের জন্য উপযুক্ত বলে মত তাঁদের। এতে বন্ধ্যত্বের সমস্যা পুরুষদের মধ্যে কমবে বলেই মনে করছেন তাঁরা।

বিশ্বজুড়েই টাইট পোশাকের পাশাপাশি আবহাওয়ার পরিবর্তন, বাড়তে থাকা পারদ পুরুষদের বন্ধ্যত্বের একটা বড় কারণ হয়ে উঠেছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা।

হু জানাচ্ছে, সারা বিশ্বে বন্ধ্যত্বের সমস্যা ১৫ থেকে ২০ শতাংশে পৌঁছেছে। যার মধ্যে পুরুষদের বন্ধ্যত্ব ৪০ শতাংশ ছুঁয়েছে।

চিকিৎসকেরা আরও জানাচ্ছেন, আগে পুরুষরা ২৫ থেকে ৩০ বছর বয়সে বাবা হতেন। এখন পুরুষরা বিয়েই করছেন ৩০ বছরের পর। মহিলারাও তাই। পুরুষদের এই বেশি বয়সে বিয়ে তাঁদের মধ্যে বন্ধ্যত্বের প্রবণতা বাড়াচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.