SciTech

চাঁদ দখল করে সেখানে সেনা নামাতে চাইছে চিন, দাবি নাসার

বিশ্বে দখলদারির রাজনীতি মাথা চাড়া দিয়েছে। রাশিয়া, চিনের মত দেশের এমন প্রবণতা নজর কাড়ছে। এই অবস্থায় চাঁদের দিকেও নজর দিচ্ছে চিন বলে দাবি করল নাসা।

একটা সময় ছিল বিশ্বের একটা দেশ অন্য দেশ দখল করার চেষ্টা চালাত। সেই সাম্রাজ্যবাদের ধারনা মাঝে বিলুপ্ত হয়। কিন্তু ফের তা নয়া আঙ্গিকে ফিরছে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা। রাশিয়া বা চিনের কার্যকলাপে তেমন ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।

কিন্তু সে তো বিশ্বের মধ্যের ভূখণ্ড। চিন এবার চাঁদের দখলও নিতে চেষ্টা শুরু করেছে। অন্তত এমনই দাবি করেছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা।

নাসার অ্যাডমিনিস্ট্রেটর বিল নেলশন দাবি করেছেন, চিন চাঁদ দখল করে নিতে চাইছে। সেখানে তারা মহাকাশ গবেষণা নয়, সামরিক মহাকাশ গবেষণা চালাচ্ছে।

২০৩৫ সালের মধ্যে চাঁদে চিন মুন স্টেশন বানিয়ে ফেলার লক্ষ্যে ছুটছে। তারপর সেখানে মানুষ রেখে বিভিন্ন গবেষণা শুরু করে দেবে।

চিন মহাকাশে সামরিক গবেষণা চালানোর চেষ্টা করছে বলেও দাবি করেছেন নেলশন। তাঁর দাবি, চিন তার নভশ্চরদের অন্য দেশের কৃত্রিম উপগ্রহ কীভাবে নষ্ট করে দিতে হয় তার প্রশিক্ষণ দিচ্ছে।

চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে যে জল জমা রয়েছে বলে জানা গেছে, তা সংগ্রহ করে তা দিয়ে রকেটের জ্বালানি হিসাবে কাজে লাগানোর চেষ্টাও করছে চিন বলে দাবি করেছেন বিল।

এভাবে ক্রমশ চাঁদের মাটিতে নিজেরে সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করে চাঁদটাই দখল করতে চাইছে চিন বলে চাঞ্চল্যকর দাবি করেছেন নাসার অ্যাডমিনিস্ট্রেটর। যদিও চিনের দাবি, তাদের মহাকাশ গবেষণা একেবারেই শান্তির উদ্দেশ্যে চলছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.