Health

করোনার পর কোভ্যাক্সিন নেওয়া আর আগে নেওয়ায় বিস্তর ফারাক

করোনা হয়ে গেছে এমন মানুষের দেহে কোভ্যাক্সিন টিকা প্রদান আর করোনা হয়নি এমন মানুষের দেহে কোভ্যাক্সিন প্রদানে প্রভাব অনেক আলাদা, বলছে আইসিএমআর।

করোনা হয়ে গেছে এমন অনেক মানুষ রয়েছেন বা ছিলেন যাঁরা টিকার প্রথম ডোজও নেননি। এমন মানুষ জন যদি করোনা হয়ে যাওয়ার নির্দিষ্ট সময় পর ভারতে তৈরি করোনা প্রতিষেধক টিকা কোভ্যাক্সিনের প্রথম ডোজ নেন তাঁদের শরীরে কতটা অ্যান্টিবডি তৈরি হচ্ছে তা পরীক্ষা করে দেখা হয় একটি গবেষণায়।

পরীক্ষায় ওই ব্যক্তির দেহে অ্যান্টিবডি তৈরির পরিমাণ মাপা হয়। এরপর করোনা হয়নি এমন মানুষের দেহে কোভ্যাক্সিন টিকা প্রদান করার পর তাঁর দেহের অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করা হয়।

গবেষণায় দেখা গেছে করোনা হয়ে গেছে এমন মানুষের দেহে কোভ্যাক্সিন টিকা প্রদানের পর প্রথম ডোজ দিতেই যে অ্যান্টিবডি তৈরি হচ্ছে তা করোনা হয়নি এমন মানুষের দেহে কোভ্যাক্সিনের ২টি ডোজ দেওয়া হয়ে গেছে এমন ব্যক্তির দেহে তৈরি অ্যান্টিবডির হয় সমান অথবা বেশি হচ্ছে।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ বা আইসিএমআর এই গবেষণা চালায়। যার ফল সামনে এনেছে তারা। অবশ্যই ফল বেশ চমকপ্রদ।


তবে এই পরীক্ষা কেবল কোভ্যাক্সিন টিকা গ্রহণকারীদের বেছে নিয়েই করা হয়েছে। ফলে বাকি টিকায় প্রভাব কেমন তা এই ফল থেকে বোঝা মুশকিল।

এই ফলাফল কেবল ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিনের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। তবে এই পরীক্ষা একটা ইঙ্গিত হয়তো বহন করছে যে করোনা হয়ে গেছে এমন ব্যক্তির দেহে করোনা টিকার ১টি ডোজ প্রদানে ফল হচ্ছে যথেষ্ট নজরকাড়া। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button